মেহেদী হাসান
আমার ভালবাসা অনুচ্চারিত
জীবাশ্ম জ্বালানীর মতো অতল গভীরে।
পাপড়ি থেকে ফুল বের হয়ে অাসতে চায়
বোবা মায়ায় পলকহীন চেয়ে রয়।
মুখফুটে বলে না, তোমায় কতদিন দেখি না
মনের ভিতর ছাইপোড়া অঙ্গার হয়ে রয়।

পড়ন্ত বিকেল একদিন
রাস্তার পাশে আনমনে দাঁড়িয়ে
হঠাৎ দেখি তার মতোই একজন
কাছে অাসেতই দেখি, কপোলে মায়াবী তিলক
বদনখানি প্রসন্ন বিকেলের সোনালী অাভায় ঢাকা।
কি যেন বলবো, তবুও বলা হলো না
সে চলে গেল, গায়ের গন্ধ রেখে গেল।

ঘুমঘুম অাঁখি, ঘুমন্ত নগরী
ঘুমের ঘোরে অনুচ্চারিত ভালবাসার জাল বুনি।
কতবার বলি, তোমায় অামি ভালবাসি;
কেন যে শব্দ হয় না, মনের গহীনে থাকে।
রাতভর স্বপ্নের খেলা খেলে যাই
দিবসে অনুচ্চারিত ভালবাসার গীত গাই।

অামার ভালবাসা অনুচ্চারিত শব্দ
অাঁখি কথা বলে, মন বোবা কান্নায় কাঁদে
নিরবে নিভৃতে চেয়ে থাকে তারপথ পানে।
আঁখি থেকে নির্গলিত অশ্রু ঝড়ে পড়ে
যে দেখার সে দেখে না, দেখে অামার মন
মন বলে, বলে ফেল, তুমি অামার তপস্যার দিবস-রাত।

LEAVE A REPLY