মোঃ শামীম আহমেদ, সৈয়দপুর প্রতিনিধি:
আঞ্চলিক বিমানবন্দর করা হচ্ছে সৈয়দপুর বিমানবন্দরকে। নীলফামারীর সৈয়দপুর বিমানবন্দরকে আগামী বছরের শুরুতেই আঞ্চলিক বিমানবন্দরে পরিণত করা হবে। আধুনিক রাডার স্টেশন নির্মান কাজ শেষ পর্যায়ে। প্রধানমন্ত্রীর সবুজ সংকেতের পর সৈয়দপুর বিমানবন্দর আঞ্চলিক বিমানবন্দরে রূপান্তরিত করার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য। আর সংশ্লিষ্ট অধিদপ্তরের অনুমতি পেলেই কাজ শুরু হবে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক। এতে ভারতসহ প্রতিবেশী দেশগুলোতে ফ্লাইট পরিচালনা সহজ হবে।
আর তার মধ্য দিয়ে সৈয়দপুরের বাণিজ্যিক গুরুত্ব বাড়বে। তবে বিমানবন্দরটিকে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে রূপান্তর করার দাবি জানিয়েছেন সৈয়দপুরসহ রংপুর বিভাগের শিল্প মালিক ও ব্যবসায়ীরা। স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে নানা দিক দিয়ে অবহেলিত ছিল উত্তরের জনপদ রংপুর অঞ্চল। তবে সময় পরিবর্তনের সাথে সাথে বদলেছে এ বিভাগের কৃষি-শিক্ষাসহ সার্বিক ব্যবসা-বাণিজ্য। সৈয়দপুর বিমানবন্দরটি অবস্থান রংপুর বিভাগের মাঝামাঝি স্থানে হওয়ায়, ভৌগোলিক কারণে এর গুরুত্ব বেড়েছে।
বিমানবন্দরটিকে আন্তর্জাতিক মানের করা হলে এ অঞ্চলের শিল্প-বাণিজ্যে প্রসার ঘটবে এমনটা মনে করেন স্থানীয় জনগণ ও ব্যবসায়ীরা। উত্তরবঙ্গের অধিবাসী হিসেবে এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন তারা। এছাড়া ভুটান, ভারত ও বাংলাদেশের এয়ার ট্রানজিট হিসেবে সৈয়দপুরকে ব্যবহার করা সম্ভব হবে বলে জানিয়েছেন তারা। বৈদেশিক বাণিজ্যে যদি বিমান ব্যবহারের প্রয়োজন হয় তবে সৈয়দপুরে আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরের বিকল্প নেই বলে জানান।
অবশ্য স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ শওকত চৌধুরী জানালেন, সৈয়দপুর বিমানবন্দরকে আন্তর্জাতিক নয়, আঞ্চলিক বিমানবন্দরে রূপান্তর করা হবে। আঞ্চলিক বিমানবন্দরের জন্য যতটুকু জায়গার প্রয়োজন সেই জায়গা নেওয়ার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।
জেলা প্রশাসক জাকির হোসেন জানান, প্রাথমিক কাজ শুরু হলেও সংশ্লিষ্ট অধিদপ্তর থেকে অনুমতি পেলে মূল কাজ শুরু হবে। তিনি বলেন, সর্বশেষ নির্দেশনা অনুসারে তারা কাজ করছেন। এক্ষেত্রে সম্ভাব্যতা যাচাইও করা হচ্ছে বলে জানান। ১৯৭৯ সালে সৈয়দপুর বিমানবন্দরের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয়। অভ্যন্তরীণ রুটে প্রতিদিন এ বিমানবন্দর থেকে ৩টি করে ফ্লাইট আসা-যাওয়া করে।

LEAVE A REPLY