আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রেসিডেন্ট পার্ক জুন-হাইয়ের পদত্যাগ দাবিতে আবারও উত্তাল হয়ে উঠেছে দক্ষিণ কোরিয়া। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের পাশাপাশি এখন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমেও ফলাও করে প্রচার হচ্ছে এই বিক্ষোভের খবর। শনিবার (১২ নভেম্বর) রাজধানী সিউলে সরকারবিরোধীরা স্মরণকালের সবচেয়ে বড় বিক্ষোভ দেখায়।

রবিবার (১৩ নভেম্বর) মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানায়, দুর্নীতি আর অব্যবস্থাপনার অভিযোগ তুলে হাজার হাজার বিক্ষোভকারী স্লোগানে স্লোগানে কেবল প্রেসিডেন্টের পদত্যাগ দাবি করছেন। বিক্ষোভ যেন জনসমুদ্রে পরিণত হয়। পুরো সিউলের রাজপথ জনতার দখলে চলে আসে।

জুন-হাই রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ নথি একজন ‘অননুমোদিত’ ব্যক্তির সঙ্গে ভাগাভাগি করেছেন বলে খবর ছড়ানোর পর এই বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। সংবাদমাধ্যম জানাচ্ছে, এই বিক্ষোভ দক্ষিণ কোরিয়ার কয়েক দশকের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় বিক্ষোভ।

সংবাদমাধ্যমের খবর মতে, এই বিক্ষোভে সপরিবারে অংশ নিয়েছে জনতা। অংশ নিতে দেখা গেছে শিশু, শিক্ষার্থী, পেশাজীবী এবং শ্রমিকদেরও।

এদিকে রবিবার প্রেসিডেন্ট কার্যালয় থেকে জানানো হয়েছে, প্রেসিডেন্ট এই বিক্ষোভ পর্যবেক্ষণ করেছেন এবং বিক্ষোভকারীদের দাবি শুনেছেন।

বিক্ষোভকারীরা বলছেন, রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ নথি জুন-হাইয়ের কাছে নিরাপদ নয়। তিনি যোগ্য ব্যবস্থাপকও নন, নন যোগ্য নেতাও। প্রেসিডেন্ট পদে থাকার যৌক্তিকতা হারিয়েছেন তিনি। তারা বলছেন, প্রেসিডেন্ট পদত্যাগ না করা পর্যন্ত তারা আন্দোলন চালিয়ে যাবেন।

বিক্ষোভ চলাকালে নিরাপত্তা বাহিনীর ৪ সদস্য ও অর্ধশতাধিক লোক আহত হন। আহতদের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে কীভাবে তারা আহত হয়েছেন সে বিষয়ে কিছু বলছে না সংবাদমাধ্যম।

LEAVE A REPLY