মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় মৌলভীবাজারের বড়লেখার তিন রাজাকারের বিরুদ্ধে পাচঁটি অভিযোগে তদন্ত চূড়ান্ত করেছে তদন্ত সংস্থা।

আজ সোমবার ধানমন্ডিস্থ সংস্থাটির প্রধান কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।

ধর্ষণ, লুট, অগ্নিসংযোগ, অপহরণ, নির্যাতনসহ মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে আব্দুল মান্নান ওরফে মনাই মিয়া (৬৪), আব্দুল আজিজ ওরফে হাবুল (৬৪) ও আব্দুল মতিনের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ চুড়ান্ত হয়।

তদন্ত সংস্থার প্রধান সমন্বয়ক আব্দুল হান্নান খান বলেন, মৌলভীবাজারের এ তিন রাজাকারের বিরুদ্ধে তদন্ত চূড়ান্ত হয়েছে। শিগগিরই প্রতিবেদনটি ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউশন বরাবর দাখিল করা হবে। এ মামলাটি তদন্ত করেন তদন্ত সংস্থার সদস্য শাহজাহান কবির।

সংবাদ সম্মেলনে তদন্ত সংস্থার প্রধান সমন্বয়ক আব্দুল হান্নান খান, জ্যেষ্ঠ সদস্য সানাউল হকসহ সংস্থার সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে গত ১৩ জুলাই আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ এর চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. আনোয়ারুল হকের নেতৃত্বে তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনালে চুড়ান্ত তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য নির্দেশ দেন।

আসামিদের বিরুদ্ধে মোট দুটি অভিযোগ রয়েছে। তবে তদন্ত শেষ হলে এসব অভিযোগ বাড়তে পারে বলে ধারণা করছেন মামলার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীরা।

উল্লেখ্য, গত ২৯ ফেব্রুয়ারি মানবতাবরোধী অপরাধের মামলায় বড়লেখার তিনজনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১। এরপর মধ্যে আব্দুল আজিজ ও আব্দুল মান্নানকে গ্রেফতার করে পুলিশ। মতিন পলাতক রয়েছেন।

LEAVE A REPLY