ক্রীড়া ডেস্কঃ
আজ দুটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল)এ। দিনের প্রথম ম্যাচে লড়বে বরিশাল বুলস ও চিটাগং ভাইকিংস। আসরের ১২তম ম্যাচটি দুপুর ২টায় অনুষ্ঠিত হবে মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে।

দুরন্ত বরিশালের সামনে পথ হারানো চিটাগং না হয়ে লেখাটা শুরু হতে পারতো অধিনায়ক বনাম সহ-অধিনায়কের লড়াই। কিন্তু, ঢাকার কাছে হারার পর বরিশাল যেভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে, তাতে তাদেরকে দুরন্ত না বলে উপায় নেই। ব্যাট হাতে অর্ধ শতক দিয়ে শুরু করা তামিম যেমন ধুঁকছেন, তেমনই প্রথম ম্যাচে কুমিল্লাকে হারিয়ে শুভ সূচনা করা চিটাগং পরপর দুই ম্যাচ হেরে কোণঠাসা হয়ে পড়েছে।

দলে তামিম, বিজয়, মিলন, ডোয়াইন স্মিথ, শোয়েব মালিকদের মতো ব্যাটসম্যান থাকা সত্ত্বেও ব্যাটিং নিয়েই বেশি সমস্যায় পড়েছে দলটি। সর্বশেষ ম্যাচে খুলনার বিপক্ষে ১২৭ রান তাড়া করতে নেমে ৪ রানে হেরেছে চিটাগং ভাইকিংস। নামের মধ্যে ভাইকিংস থাকলেও ব্যাট হাতে প্রতিপক্ষের কাছ থেকে রান লুটে নিতে ব্যর্থ হচ্ছে টি-২০ ক্রিকেটের তারকা সমৃদ্ধ এই দলটি।

অন্যদিকে বরিশাল বুলস আছে দারুণ ছন্দে। দলে সেই রকম কোনো মহাতারকা নেই, কিন্তু, মুশফিকুর রহিম ব্যাট হাতে দুর্দান্ত খেলছেন শুরু থেকেই, প্রথম ম্যাচেই অর্ধ শতক তুলে নেয়া টেস্ট অধিনায়ক সর্বশেষ ম্যাচেও রাজশাহীর বিপক্ষে খেলেছেন ঝড় তোলা অপরাজিত ৮১ রান। সাথে যোগ্য সঙ্গত করে যাচ্ছেন অভিজ্ঞ শাহরিয়ার নাফীস, তিনিও ৩ ম্যাচে ২য় অর্ধশতক তুলে নিয়েছেন রাজশাহী কিংস-এর বিপক্ষে। রান প্রসবা ম্যাচে বরিশাল ৪ রানে জয়লাভ করে।

গত কয়েক ম্যাচে বড়ো স্কোর না হলেও বরিশাল-রাজশাহী ম্যাচে দুই দলের স্কোরই ১৮০ পার হয়েছে। কাল বরিশাল আর চিটাগং-এর ম্যাচেও রানের ঝড় উঠবে, সেই প্রত্যাশায় দর্শক। তবে, রান তোলার চাপটা বেশি থাকবে বন্দর নগরীর ফ্রাঞ্চাইজি ভাইকিংস-এর ওপরেই। পরপর দুই ম্যাচ জেতা বরিশাল বুলস তুলনামূলক হালকা চাপেই খেলবে ম্যাচ। টেস্ট দলের অধিনায়ক-সহ-অধিনায়কের ব্যাট হাতে জ্বলে ওঠাটাও দুই দলের জয়-পরাজয়ে বেশ প্রভাব ফেলবে, সেটা অনুমিতই।

বোলিংয়ের দিক দিয়ে চিটাগং কিছুটা এগিয়ে আছে, তবে স্নায়ুক্ষয়ী ম্যাচে রাজশাহীকে ৪ রানে হারানো বরিশালের বোলাররাও আত্মবিশ্বাস নিয়ে বল করবেন। ব্যাটে বলে লড়াইটা কেমন জমবে তার অনেকখানি নির্ভর করছে চিটাগং ভাইকিংস-এর ওপর। তামিমের দল জয়ের ধারায় ফেরে কি না সেটাই দেখার।

সম্ভাব্য একাদশ-

বরিশাল বুলসঃ শাহরিয়ার নাফিস, শামসুর রহমান, আল-আমিন হোসেন, মুশফিকুর রহিম (অধিনায়ক), মেহেদী হাসান, তাইজুল ইসলাম, দিলশান মুনাভিরা, এমরিট, মালন, থিসারা পেরেরা এবং মনির হোসেন।

চিটাগং ভাইকিংসঃ তাসকিন , আনামুল হক (উইকেটরক্ষক), স্মিথ, তামিম ইকবাল ©, শোয়েব মালিক, আব্দুর রাজ্জাক, মিলস, মোঃ নবী, জহুরুল এবং নাজমুল মিলন।

LEAVE A REPLY