সেনা বিদ্রোহে উসকানি দেওয়ার অভিযোগে রাজধানীর গুলশান থানার এক মামলায় নাগরিক ঐক্যর আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্নাকে দেওয়া হাইকোর্টের জামিন ২৭ নভেম্বর পর্যন্ত স্থগিত করেছেন আপিল বিভাগ। এই সময়ের মধ্যে রাষ্ট্রপক্ষকে নিয়মিত লিভ টু আপিল করতে বলা হয়েছে।

সোমবার প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ভারপ্রাপ্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মুরাদ রেজা। মান্নার পক্ষে শুনানিতে অংশ নেন আইনজীবী ইদ্রিসুর রহমান।

এর আগে একই মামলায় গত ১০ নভেম্বর হাইকোর্টের একটি দ্বৈত বেঞ্চ মান্নাকে জামিন দেয়। এতে স্থগিতাদেশ চেয়ে আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ। চেম্বার বিচারপতি রোববার আবেদনটি নিয়মিত বেঞ্চে সোমবার শুনানির জন্য পাঠান।

গত বছরের ২৪ ফেব্রুয়ারি ও ৫ মার্চ  সেনা বিদ্রোহে উসকানি ও রাষ্ট্রদ্রোহের  অভিযোগে গুলশান থানায় মান্নার বিরুদ্ধে পৃথক মামলা হয়। নিউইয়র্কে অবস্থানরত বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকা এবং অন্য এক ব্যক্তির সঙ্গে মান্নার উল্লিখিত অভিযোগ সংক্রান্ত টেলিফোন আলাপের দুটি অডিও ক্লিপ প্রকাশের পর ২৫ ফেব্রুয়ারি মান্নাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এই দুই মামলায় নিম্ন আদালতে ২ ও ৭ মার্চ মান্নার জামিন আবেদন নাকচ হয়। এর বিরুদ্ধে স্বাস্থ্যগত যুক্তিতে হাইকোর্টে জামিনের আবেদন করেন মান্না। পরে মান্নাকে হাইকোর্ট জামিন দেয়।

LEAVE A REPLY