ক্রীড়া ডেস্ক

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে উয়েফা অঞ্চলের লড়াইয়ে ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোকে আরেকবার দুর্দান্তভাবে দেখা গেল। জোড়া গোল করেছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। মিস করেছেন পেনাল্টি। যদিও দুই গোলের একটি পেনাল্টি থেকেই। ক্রসবারেও লাগিয়েছেন বল। রোনালদোময় এই ম্যাচে লাটভিয়াকে ৪-১ গোলে হারিয়েছে ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়ন পর্তুগাল।

এই জয়ে চার ম্যাচে ৯ পয়েন্ট নিয়ে ‘বি’ গ্রুপের দুইয়ে উঠে এসেছে পর্তুগাল। সব ম্যাচ জিতে সুইজারল্যান্ড  ইউরোপ চ্যাম্পিয়নদের চেয়ে ৩ পয়েন্টে এগিয়ে থেকে শীর্ষে।

রবিবার অন্য ম্যাচগুলোর চেয়ে পর্তুগাল ও লাটভিয়ার ম্যাচটি বেশি নজরে ছিল, রোনালদো কী করেন সবাই তার অপেক্ষায় ছিলেন। ভক্ত-সমর্থকদের একটুও হতাশ করেননি ‘সিআরসেভেন’। ম্যাচের বয়স আধা ঘণ্টা না হতেই তার পা থেকে গোল এসেছে। লাটভিয়ার জিন্টস ফ্রেইম্যানিস ডি-বক্সে ফাউল করেন ন্যানিকে, ২৮ মিনিটের পেনাল্টি থেকে গোলমুখ খোলেন রিয়াল মাদ্রিদের তারকা। রোনালদো পর্তুগালের ব্যবধান দ্বিগুণ করতে পারতেন এক ঘণ্টা আগেই, কিন্তু তাকে আক্ষেপে পুড়িয়ে দ্বিতীয় পেনাল্টি শটটি পোস্টে লাগে। ইউরোপ চ্যাম্পিয়নদের আফসোস আরও বেড়ে যায় ৬৭ মিনিটে; আর্তার্স জুজনিস গোল করে সফরকারীদের সমতায় ফেরান। কিন্তু লাটভিয়ার এ আনন্দ ছিল ক্ষণস্থায়ী, মাত্র দুই মিনিট পর উইলিয়াম কারভালহো পর্তুগিজদের ২-১ এ এগিয়ে দেন। খেলা শেষ হওয়ার পাঁচ মিনিট আগে চমৎকার এক ভলিতে দ্বিতীয়বার জাল খুঁজে পান রোনালদো। শেষদিকে দুইবার সুযোগ পেয়েও হ্যাটট্রিক করতে পারেননি তিনি। তবে পর্তুগাল ঠিকই চতুর্থ গোল আদায় করে নেয় যোগ করা সময়ে, রাফায়েল গুয়েরেইরোর ক্রস থেকে গোল করেন ব্রুনো আলভেস।

লাটভিয়ার বিপক্ষে জোড়া গোলে পর্তুগালের হয়ে রোনালদোর গোলসংখ্যা ৬৮। ইউরোপের সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতার মধ্যে রোনালদোর অবস্থান যৌথভাবে চতুর্থ। রোনালদোর আগে দেশের হয়ে ৬৮টি গোল আছে জার্মানির জার্ড মুলার ও রিপাবলিক অব আয়ারল্যান্ডের রবি কিনের।

LEAVE A REPLY