ক্রীড়া ডেস্ক

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে জিতেই চলেছে ব্রাজিল। একটি ম্যাচেও হারেনি ব্রাজিল। আটটি ম্যাচে মাঠে নেমে ২টিতে ড্র করেছে। আর জিতেছে ছয়টিতে। আগের ম্যাচেই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনাকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে তারা। আজ ভোরে লিমায় পেরুর বিপক্ষেও প্রত্যাশিত জয় কুড়িয়েছে তিতে-বাহিনী। গ্যাব্রিয়েল জেসুস ও রেনাতো আগুস্তোর দ্বিতীয়ার্ধের দুই গোলে (২-০) জিতে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে লাতিন অঞ্চলের শীর্ষস্থানটা ধরে রেখেছে তারা।

যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত ২০১৬ শতবর্ষী কোপা আমেরিকায় এই পেরুর কাছেই হেরে গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিয়েছিল ব্রাজিল। এরপর দলে দায়িত্ব দেওয়া হয় তিতের হাতে। আর তার স্পর্শেই বদলে গেলো ব্রাজিলের চেহেরা।

ঘরের মাঠে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের ৩-০ গোলে হারানোয় স্বাভাবিকভাবেই পেরুর জন্য অপেক্ষা করছিল কঠিন পরীক্ষা। যদিও অ্যাওয়ে ম্যাচ বলে চ্যালেঞ্জটা কম ছিল না ব্রাজিলের জন্যও। প্রথমার্ধে সেই চ্যালেঞ্জটা উতরাতে পারেনি কিন্তু নেইমাররা। লিমার ম্যাচে বিরতিতে গিয়েছিল যে গোলশূন্যভাবে। যদিও বিরতির পর বদলে যায় সব। ৫৮ মিনিটে ডি বক্সের ভেতর থেকে লক্ষ্যভেদ করে ব্রাজিলকে এগিয়ে নেন হেসুস। আর ৭৮ মিনিটে এই ফরোয়ার্ডের পাস থেকেই স্কোরশিটে নাম তোলেন অগাস্তো। ২-০ ব্যবধান হওয়ার আগ মুহূর্তেই নেইমারের শট আঘাত করেছিল ক্রসবারে। গোল সংখ্যা না বাড়লেও সহজ জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে ব্রাজিল। সঙ্গে স্বস্তি নিয়ে ফিরেছে দেশে।

এ জয়ে দ্বাদশ রাউন্ড শেষে শীর্ষে থাকা ব্রাজিলের পয়েন্ট ২৭। দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চল থেকে শীর্ষ চারটি দল সরাসরি খেলবে রাশিয়া বিশ্বকাপে। পঞ্চম দলটিকে প্লে-অফ খেলতে হবে ওশিয়ানিয়া অঞ্চলের সেরা দলের সঙ্গে।

অপরদিকে কলম্বিয়ার বিপক্ষে ৩-০ গোলের জয় দিয়ে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের কক্ষপথে ফিরেছে আর্জেন্টিনা।

LEAVE A REPLY