ব্রাজিলের কাছে ৩-০ গোলে বিধ্বস্তের ধকল এখনও কাটেনি মেসিদের। এরই মধ্যে ঘরের মাঠে বাঁচা-মরার লড়াইয়ে কলম্বিয়ার মুখোমুখি তারা।

এই ম্যাচ হারলে ২০১৮ সালের বিশ্বকাপই অনিশ্চিত আর্জেন্টিনার। তবে সে সম্ভাবনাকে প্রথমার্ধেই অনেকটা উড়িয়ে দিলেন ভিনগ্রহের ফুটবলার লিওনেল মেসি।

রাশিয়া বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের খেলায় বুধবার বাংলাদেশ সময় ভোরে শুরুতেই আক্রমণাত্মক খেলে আর্জেন্টিনা। ফল হিসেবে ১০ মিনিটেই দলকে এগিয়ে দেন বার্সেলোনা তারকা মেসি।

বল ধরে ক্ষিপ্রতায় প্রতিপক্ষের রক্ষণে এগিয়ে যাওয়ার সময় অবৈধ ট্যাকলের শিকার হন মেসি। সেটিই শেষ পর্যন্ত কলম্বিয়ার জন্য কাল হয়ে দাঁড়ায়। ২৫ গজ দূর থেকে নেয়া মেসির মাস্টার ক্লাস ফ্রি-কিক কলম্বিয়ার গোলরক্ষক ওসপিনাকে বোকা বানিয়ে জালে জড়িয়ে যায়।

নানা সমালোচনার মুখে পাওয়া এই গোল যে কতটা গুরুত্বপূর্ণ তা মেসির বাঁধভাঙা উদযাপনেই বোঝা যায়।

মেসির গোলের শোক কাটিয়ে উঠতে না উঠতে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন লুকাস প্যারাতো। ২৩ মিনিটে ডি-বক্সের বেশ বাইরে থেকে মেসি চলন্ত বলকে কলম্বিয়ার গোল মুখে উড়িয়ে দেন লুকাসকে উদ্দেশ্য করে। তার নিখুঁত পাসে কেবল মাথা ছুঁইয়ে ব্যবধান ২-০ করেন লুকাস।

প্রথমার্ধের বাকি সময়েও আধিপত্য ধরে রেখে বিরতিতে যায় আর্জেন্টিনা। ফিরেও আধিপত্য ধরে রাখে মেসিরা। ৮৪ মিনিটে মেসির পাস থেকে ফাঁকা পোস্টে ডি মারিয়া বল জড়ালে বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাউজার শিষ্যরা।

এ জয়ে ১২ ম্যাচে ১৯ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচে উঠে এসেছে আর্জেন্টিনা। তবে ১১ ম্যাচে ২৪ পয়েন্ট নিয়ে যথারীতি শীর্ষে রয়েছে ব্রাজিল। এ অঞ্চল থেকে সরাসরি চারটি দল ২০১৮ সালের রাশিয়া বিশ্বকাপে অংশ নেবে।

LEAVE A REPLY