রাজধানীর তেজগাঁও স্কুলের ছাত্র সোহাগ হোসেন (১৫) গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে দাবি করেছেন স্বজনেরা।

শনিবার (১৯ নভেম্বর) সন্ধ্যায় তেজগাঁও রেলওয়ে কলোনিতে এ ঘটনা ঘটে।

সোহাগের বাবা মোরশেদ আলম বলেন, তিনি পরিবার নিয়ে তেজগাঁও রেলওয়ে কলোনিতে থাকেন। তার ছেলে সোহাগ স্থানীয় তেজগাঁও স্কুলের ৯ম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

সোহাগকে মুমূর্ষু অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে রাত সাড়ে ৮টায় মৃত ঘোষণা করেন।

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ বক্সের উপ-পরিদর্শক (এসআই) বাচ্চু মিয়া জানান, সন্ধ্যায় বাসায় মায়ের শাড়ি গলায় পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে সোহাগ। পরে মুমূর্ষু অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে এলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। তবে এখন পর্যন্ত আত্মহত্যার কারণ জানাতে পারেননি তার স্বজনেরা।

সোহাগের মরদেহ মর্গে রাখা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

LEAVE A REPLY