আন্তর্জাতিক ডেস্ক
ভারতের উত্তর প্রদেশ রাজ্যের কানপুরে পাটনা-ইনদোর এক্সপ্রেস ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে ৪৫ জন নিহত হয়েছেন। শনিবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে কানপুর দেহাত জেলার পুখরায়ান এলাকায় এক্সপ্রেস ট্রেনটির ১৪টি যাত্রাবাহী বগি লাইনচ্যুত হয়। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন ১৫০ জনের বেশি।

উত্তর প্রদেশ পুলিশের এডিজি (আইনশৃঙ্খলা) দলজিৎ সিং চৌধুরী জানিয়েছেন, লাইনচ্যুত বগিগুলো থেকে এ পর্যন্ত ৪৫টি মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে উদ্ধারাভিযান এখনো চলছে। হতাহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে। অনেক যাত্রী গুরুতর আঘাত পেয়েছেন।

ইন্ডিয়ান রেলওয়েসের মুখপাত্র অনিল সাক্সেনা জানিয়েছেন, জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা ও মেডিক্যাল টিম দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। এ বিষয়ে জেলার কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখা হচ্ছে।

উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদব প্রদেশ পুলিশের মহাপরিচালককে প্রত্যক্ষভাবে উদ্ধারাভিযান তদারকির নির্দেশ দিয়েছেন। এ ছাড়া রেলমন্ত্রী সুরেশ প্রভু এ ঘটনা তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

এদিকে, যাত্রীদের নিজ নিজ গন্তব্যে পৌঁছে দেওয়ার জন্য বিশেষভাবে বাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে। নর্দান সেন্ট্রাল রেলওয়ের মুখপাত্র বিজয় কুমার জানিয়েছেন, দুর্ঘটনাকবলিত ট্রেনের এস-২ বগিতে থাকা যাত্রীরা বেশি মারা গেছেন। ওই বগি মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

বিকাশ কুমার আরো জানান, রেলওয়ের সঙ্গে জেলা প্রশাসন উদ্ধারাভিযান চালাচ্ছে। ট্রেনের চারটি এসি কোচও লাইনচ্যুত হয়েছে।

কানপুর রেঞ্জের ডিআইজি রাজেশ মোদক জানিয়েছেন, ট্রেনের দুটি বগি মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং এতে অনেকে হতাহত হয়েছেন।

তথ্যসূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া

LEAVE A REPLY