সাঁওতালদের উচ্ছেদ কেন আইনগত কর্তৃত্ব বহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না জানতে চেয়ে রুল জারি করেছে হাইকোর্ট বিভাগ । সেই সাথে এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি আইনে কেন ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেয়া হবে না রুলে তাও জানতে চাওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি কৃষ্ণা দেবনাথের ডিভিশন বেঞ্চ  এ আদেশ দেন। রিট আবেদনকারী ওই হামলার ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত করতে আবেদন করলেও আদালত তাতে সাড়া দেয়নি।

সাঁওতালদের ওপর হামলা এবং ঘর-বাড়িতে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত চেয়ে হাইকোর্ট বিভাগে রিট আবেদন দায়ের করেন আইনজীবী জ্যোর্তিময় বড়ূয়া ।

হামলায় আহত সাঁওতাল দ্বিজেন টুডোর স্ত্রী অলিভিয়া হেমব্রম এবং গণেশ মুরমোর স্ত্রী রুমিলিয়া কিসকোর পক্ষে তিনি হাইকোর্ট বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় এই রিট দায়ের করেন।

এর আগে গত ১৫ নভেম্বর সাওতালদের উপর হামলা ও এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে কি ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে তা জানাতে সরকারকে লিগ্যাল নোটিশ দিয়েছিলেন ওই আইনজীবী। নোটিশ প্রাপ্তির পর এর জবাব না পেয়ে হাইকোর্ট বিভাগে রিট করা হয়।

হামলার ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি আইনে ব্যবস্থা নিতে এবং সাওতালদের উচ্ছেদের নামে ‘লুটপাট, অগ্নিসংযোগ, গুলি ও হত্যা’ কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না- তা জানতে রুল চাওয়া হয়েছে রিট আবেদনে।

উল্লেখ্য, গত ৬ নভেম্বর রংপুর চিনিকলের সাহেবগঞ্জ বাগদা ফার্মের বিরোধপূর্ণ জমি নিয়ে চিনিকল শ্রমিক-কর্মচারী ও সাঁওতালদের সংঘর্ষ থামাতে গুলি চালায় পুলিশ। এতে তিন সাঁওতাল নিহত হন, আহত হন অনেকে।

LEAVE A REPLY