বাসাইলে প্রশাসনের সাহায্য নিয়ে নিজের বাল্যবিয়ে ঠেকিয়েছে স্কুল ছাত্রী কল্পনা শীল (১৪)। সে পৌর শহরের পূর্বপাড়ার শ্রীভাস চন্দ্র শীলের মেয়ে ও বাসাইল পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী।

 

সোমবার বিয়ে হওয়ার কথা ছিল কল্পনার। এ উপলক্ষে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়। কিন্তু বাদ সাধে কল্পনা। সে ১৮ বছরের আগে বিয়ে করবে না বলে তার বাবা-মাকে জানায়। কিন্তু তারা বাধা উপেক্ষা করে বিয়ের দিন ধার্য করেন। বিয়ের দিন নিশ্চিত হয়ে রবিবার ভোকেশনাল পরীক্ষা শেষ করে কল্পনা তার দুই বান্ধবী নিয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনারের (ভূমি) কার্যালয়ে হাজির হয়। এ সময় সে জোর করে বিয়ে দেয়ার বিষয়টি উপজেলা সহকারী কমিশনারকে (ভূমি) জানালে কল্পনার বাবা-মাকে ডেকে আনা হয়।

 

ওই সময় মেয়েকে ১৮ বছরের আগে বিয়ে দেবে না মর্মে মুচলেকা এবং কল্পনার বাবা শ্রীভাস চন্দ্র শীলকে ১ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে সাতদিনের জেল দেয়া হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মাহমুদা খাতুন, বাসাইল পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবুল কাশেম প্রমুখ।

LEAVE A REPLY