ক্রীড়া ডেস্ক
ডিসেম্বরে নিউ জিল্যান্ড সফর করবে বাংলাদেশ। সেই সফরেই বাহাঁতি ফাস্ট বোলার মুস্তাফিজুর রহমানকে পাওয়ার জন্য মুখিয়ে আছে বাংলাদেশ ক্রিকেট। কন্ডিনশনের সাথে মানিয়ে নেওয়ার জন্য অস্ট্রেলিয়া যাবে টাইগাররা। সেই কন্ডিশনিং ক্যাম্পেও রয়েছেন মুস্তাফিজুর। নতুন ফিজিও ডিন কনওয়ে মনে করেন বোলিংয়ের পূর্ণ ফিটনেস পেতে আরো ৩-৪ সপ্তাহ লাগবে তার।

ফিজিও হিসেবে মাঠে প্রথম কাজ করলেন কনওয়ে। বোলিংয়ে তার উন্নতি হয়েছে বলে মনে করেন তিনি। অনুশীলনে ধীরে ধীরে বোলিং করেই মুস্তাফিজুরকে ফিরতে হবে বলে জানান তিনি।

সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে কনওয়ে বলেন, “‘অস্ট্রেলিয়ায় যাওয়ার আগ পর্যন্ত তার নিয়মিত পুরোদমে বোলিং করতে হবে। তারপরও পূর্ণ বোলিং ফিটনেস ফিরে পেতে তার আরো ৩-৪ সপ্তাহ লাগবে।”  সেক্ষেত্রে মাঠে নামতে হলে মুস্তাফিজুরকে টেস্ট সিরিজ পর্যন্তও অপেক্ষা করতে হতে পারে।

সম্পূর্ণ ফিট মুস্তাফিজুরকেই চাচ্ছেন ফিজিও। কারণ নিউ জিল্যান্ডের পেসবান্ধব কন্ডিশনে লম্বা স্পেলে বোলিং করতে হবে তাকে। এছাড়া খেলার মধ্যে ফিল্ডিং সহ বিভিন্ন জায়গায় চোট পাওয়ার ঝুঁকি তো আছেই।

অনুশীলনে চার ওভার বোলিং করছেন মুস্তাফিজুর। তবে এখনো সম্পূর্ণ রানআপে বল করছেন না তিনি। তবে আগের চেয়ে তার অবস্থার উন্নতি ফিজিওর কাছে সন্তোষজনক মনে হয়েছে। এখন নিজের সামর্থ্যের ৬০-৭০ ভাগ দিয়ে মুস্তাফিজুর বল করছেন।

২৬ ডিসেম্বের থেকে ২৪ জানুয়ারি পর্যন্ত তিনটি ওয়ানডে, তিনটি টি২০ ও দুটি টেস্ট খেলতে নিউ জিল্যান্ড সফরে যাবে বাংলাদেশ।

LEAVE A REPLY