শুদ্ধি অভিযানের নামে নিজেদের ভূখণ্ড থেকে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমদের উৎখাতে জাতিগত শুদ্ধি অভিযান চালাচ্ছে মিয়ানমার সরকার। এমনটিই অভিযোগ করলেন জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থার কর্মকর্তা জন ম্যাককিসিক।

জাতিসংঘের এ কর্মকর্তা আরো মনে করেন, বাংলাদেশ সরকার সীমান্ত খুলে দিলে মিয়ানমার সরকারকে আরো অত্যাচারী হতে এবং রোহিঙ্গাদের বিতাড়িত করতে উৎসাহিত করবে।

এক সাক্ষাৎকারে বলেন, রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের ওপর হত্যাযজ্ঞ চালাচ্ছে দেশটির সশস্ত্র বাহিনী। খুন, হত্যা, ধর্ষণ, লুটপাট করছে ও আগুন দিচ্ছে তাদের ঘরে। এ অভিযান থেকে বাঁচতে বাধ্য হয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে যাচ্ছে হাজারো রোহিঙ্গা।

মানবাধিকার সংস্থা হিউমান রাইটস বলছে, রোহিঙ্গাদের বারোশ’র বেশি ঘরবাড়ি পোড়ানো হয়েছে। প্রমাণ হিসেবে তারা  অভিযান শুরুর আগের ও পরের স্যাটেলাইট ছবি দেখিয়েছেন।

এ বিষয়ে মিয়ানমার সরকারের দাবি, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের মনোযোগ আকর্ষণ করতে রোহিঙ্গারা নিজেরাই ঘরবাড়ি জ্বালিয়ে দিচ্ছে ।

মিয়ানমার সরকারকে এ সংকট সমাধানে নির্যাতন বন্ধের তাগিদ দেন জাতিসংঘের এ শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা।

LEAVE A REPLY