আন্তর্জাতিক ডেস্ক

সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে দেশটির প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের অনুগত বাহিনীর বিমান হামলায় তুরস্কের তিন সেনা নিহত ও কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় ভোররাত ৩টার সময়ে এই হামলার ঘটনা ঘটে। তুরস্কের সেনারা তখন ইসলামিক স্টেট (আইএস) জঙ্গিদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করছিল। এই প্রথমবার সিরিয়া সংকট শুরুর পর এই প্রথম সরকারি বাহিনীর আক্রমণে তুরস্কের সেনা নিহতের ঘটনা ঘটলো।

কুর্দিপন্থী বিদ্রোহী ও আইএস জঙ্গিদের দমনে ওই অভিযান শুরু করে আঙ্কারা। এ অভিযানের অংশ হিসেবে ২০১৬ সালের ৩ সেপ্টেম্বর তুরস্কের কিলিস প্রদেশ থেকে সিরিয়ায় প্রবেশ করে তুরস্কের সামরিক বহর। তুর্কি সেনারা প্রবেশের পরই সেখান থেকে পালাতে শুরু করে আইএস সদস্যরা। এরপর ৪ সেপ্টেম্বর রবিবার সীমান্ত থেকে আইএসের মূলোৎপাটনের ঘোষণা দেন তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইলদিরিম।

 

তুরস্কের সীমান্ত সংলগ্ন সিরিয়ার ভূখণ্ড ইতোপূর্বে বিচ্ছিন্নভাবে আইএস এবং কুর্দি বিদ্রোহীদের নিয়ন্ত্রণে ছিল। কিন্তু তুরস্কের অভিযান শুরুর পর সে দৃশ্যপট পাল্টে যায়। দ্রুততম সময়ে সীমান্ত এলাকার নিয়ন্ত্রণ নেয় আঙ্কারা সমর্থিত ফ্রি সিরিয়ান আর্মি।

৩ সেপ্টেম্বর সিরিয়ায় প্রবেশ করা তুরস্কের সামরিক বহরে প্রায় ২০টি ট্যাংক, ৫টি সাঁজোয়া গাড়ি এবং ট্রাকসহ অন্যান্য যানবাহন ছিল। খবর আল জাজিরা।

LEAVE A REPLY