থাইল্যান্ডের নতুন রাজা হলেন মহা ভাজিরালংকর্ন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

যুবরাজ মহা ভাজিরালংকর্নকে থাইল্যান্ডের নতুন রাজা ঘোষণা করা হয়েছে। রাজা ভূমিবল আদুলাদেজের মৃত্যুর ৫০ দিন পর চকরি রাজবংশের দশম রাজার নাম ঘোষণা করা হলো। দেশটির পার্লামেন্টের আমন্ত্রণে মহা ভাজিরালংকর্ন রাজসিংহাসনে বসতে সম্মত হয়েছেন। খবর বিবিসি।

১৯৪৬ সালে ভাইয়ের মৃত্যুর পর মাত্র ১৮ বছর বয়সে ভূমিবল থাইল্যান্ডের সিংহাসনে আরোহণ করেন। সাত দশক ধরে থাইল্যান্ডের সিংহাসনে অধিষ্ঠিত ছিলেন ভূমিবল। দেশের জনগণের হৃদয়েও জাতীয় ঐক্যের প্রতীক হিসেবে শ্রদ্ধার আসনে ছিলেন তিনি। চলতি বছরের জুনে তাঁর সিংহাসনে আরোহণের ৭০তম বার্ষিকী পালন করা হয়। চলতি বছরের ১৩ অক্টোবর ৮৮ বছর বয়সে মারা যান তিনি। আর ৬৪ বছর বয়সী যুবরাজ মহা ভাজিরালংকর্ন ভূমিবলের একমাত্র ছেলে।

রাজা ভূমিবল আদুলাদেজের মৃত্যুর পর তাঁর উত্তরাধিকারী হিসেবে যুবরাজ মহা ভাজিরালংকর্ন সিংহাসনে আরোহণ করার কথা। তবে ভূমিবলের মৃত্যুর পর থাই সরকার এক বছরের শোক ঘোষণা করে। দেশটির প্রধানমন্ত্রী প্রাইয়ুথ চান-ওচা বলেছিলেন, রাজা ভূমিবলের মৃত্যুর পরপরই নতুন রাজা হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে সিংহাসনে আসীন হবেন যুবরাজ। তখন যুবরাজ বলেছিলেন, আপাতত সিংহাসনে আরোহণ নয়, তিনি জনগণের সঙ্গে শোকে শামিল হতে চান।

রাজা ভূমিবলের উত্তরসূরী নতুন রাজা মাহা ভাজিরালংকর্ন থাইল্যান্ডের জনগণের কাছে তার বাবার মতো ব্যাপক জনপ্রিয় নন। তার জীবনের একটা বড় অংশ কেটেছে থাইল্যান্ডের বাইরে।

ভূমিবল আদুলাদেজের মৃত্যুর পর থেকে মহা ভাজিরালংকর্ন সিংহাসনে আরোহণের আগ পর্যন্ত রাজপ্রতিভূ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন সাবেক সেনাপ্রধান ও দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী প্রেম তিনসুলানন্দা।

LEAVE A REPLY