ক্রীড়া ডেস্ক

তৃতীয়বারের মতো বিশ্ব দাবার শিরোপা জিতে নিলেন ম্যাগনাস কার্লসেন। রাশিয়ার সের্গেই কারিয়াকিনের সঙ্গে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতার পর শেষ হাসি হাসলেন ২৬ বছর বয়সী নরওয়ের এই দাবাড়ু। কার্লসেন ও কারিয়াকিনের নির্ধারিত ১২ ম্যাচে জয়-পরাজয় নিষ্পত্তি না হওয়ায় খেলা গড়ায় র‍্যাপিডে। টাইব্রেকারে ২৫ মিনিট করে চারটি র‍্যাপিড গেমের দুটি ড্র, দুটিতে জিতেই চ্যাম্পিয়ন হন কার্লসেন।

এর আগে এই ১২ ম্যাচের ১০টি ড্র হয়, একটি করে ম্যাচ জেতেন দুজনই।

র‍্যাপিডে ভাবনায় থাকার কথা লুকাননি কার্লসেন, ‘আমি খুবই খুশি। ম্যাচটা খেলে আমি আনন্দ খুঁজে পেয়েছি। ম্যাচটা সত্যিই আনন্দদায়ক ছিল। তবে আমার মাথায় যত নেতিবাচক ভাবনা ভর করছিল। মাথা ঠান্ডা করে খেলাটা খুব কঠিন ছিল।’ বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হয়ে ১ মিলিয়ন ডলার প্রাইজমানির ৫৫ শতাংশ দেশে নিয়ে যেতে পারবেন এই নরওয়েজিয়ান। ফাইনাল টাইব্রেকারে যাওয়ায় চুক্তি অনুযায়ী ৬০ শতাংশ অর্থ তিনি পাচ্ছেন না।
অর্থ যা-ই পান, তৃতীয়বারের মতো বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়ার আনন্দ তো আছেই তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ এই ম্যাচ তৃপ্তি দিয়েছে কার্লসেনকে।
সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান

LEAVE A REPLY