বিশ্বের সবচেয়ে পুরানো কুরআন নাকি লেখা হয়েছিল ভেড়ার চামড়ার ওপর। ২০১৫ সালে সেই কুরআনের পাণ্ডুলিপির খোঁজ মেলে বার্মিংহাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মহাফেজখানায়। ‘প্রথম কুরআন’-এর খোঁজে মেলায় হইচই পড়ে গিয়েছিল সে সময়।

আর এবার কুরআনকে ‘নতুন’ভাবে লিখে ইতিহাস গড়লেন আজারবাইজানের নারী শিল্পী তুনজালে মেমেদজাদে। প্রায় ৩ বছর সময় নিয়ে ১৬৪ ফুটের স্বচ্ছ কালো সিল্কের ওপর সোনা ও রুপা দিয়ে নিপুণ হাতে কুরআন লিখেছেন তিনি।

সিল্কের ওপর সোনার অক্ষরে কুরআন এই প্রথম লেখা হল বলে জানান ৩৩ বছরের এই শিল্পী। ১১ দশমিক ৪ ফুট বাই ১৩ ফুট সাইজের এই কুরআনের অক্ষরে লেখা হয়েছে সোনা ও রুপা দিয়ে। প্রত্যেকটি অক্ষরে নিজের হাতে লিখেছেন বলে জানান মেমেদজাদে। এ কুরআনের প্রতিটি পাতায় ফুটে উঠেছে চারুলিপির শৈল্পিক নৈপুণ্য।

তুরস্কের প্রেসিডেন্সি অব রিলিজিয়াস অ্যাফেয়ার্স, দিয়ানেট থেকে প্রকাশ পেয়েছে এ কুরআনের প্রথম সংস্করণ। এ বিষয়ে মেমেদজাদে জানান, কুরআনেই সিল্কের কথা উল্লেখ রয়েছে। তাই সিল্ক দিয়ে কুরআনের অক্ষরে তৈরি ধর্মীয় অনুভূতিতে কোনো ধরনের আঘাত করেনি।

LEAVE A REPLY