ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন ও শরিয়াহ অনুষদভূক্ত এইচ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। ৮০ টি প্রশ্নের মধ্যে ২১টি প্রশ্নে বানান ভুল ও বিরাম চিহ্নের অপ্রয়োজনীয় ব্যবহার লক্ষ্য করা গেছে। প্রশ্নপত্রে এসব অসঙ্গতি নিয়ে শিক্ষার্থীরা বিড়ম্বনায় পড়েছেন।

বিশ্ববিদ্যালয় ও সংশ্লিষ্ট ইউনিট সূত্রে জানা গেছে, সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন ও শরিয়াহ অনুষদভূক্ত ‘এইচ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। সকাল সাড়ে ৯টা থেকে সাড়ে ১০টা পর্যন্ত মোট ৫ টি কেন্দ্রে এ পরীক্ষা নেয়া হয়। ৮০ নম্বরের এই পরীক্ষায় ব্যাপক অসঙ্গতি লক্ষ্য করা গেছে। প্রশ্ন বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে ৮০ টি প্রশ্নের মধ্যে ২১ টি প্রশ্নে বিভিন্ন অসঙ্গতি রয়েছে।

৫ নং প্রশ্নে ‘ঢাকা’ বানান ‘ঢাক’ লেখা হয়েছে। এছাড়া অধ্যয়ন বানান ভুল আছে। প্রশ্নটি প্রশ্নবোধক হলেও বাক্যের শেষে কোনো প্রশ্নবোধক চিহ্ন ব্যবহার করা হয়নি। ৯ নং প্রশ্নে আমার বানান ভুল। ৪৮ নং ইংরেজি প্রশ্নটি প্রশ্নবোধক হলেও বাক্যের শেষে কোনো প্রশ্নবোধক চিহ্ন নেই। ৬৪ নং প্রশ্নে বলা হয়েছে ‘পারিবারিক আদালত কখন অর্ডিনেন্স কখন জারি করা হয়।

প্রশ্নপত্রের একাংশ ৭৯ নং প্রশ্নে বুদ্ধিজীবী বানান ভুল। ২২, ৪১, ৪৭, ৬৩, ৭৪ নং প্রশ্নে বিভিন্ন অসঙ্গতি রয়েছে। একটা প্রশ্নে উত্তর অপশনে দুইটা ‘গ’ ব্যবহার করা হয়েছে। এছাড়া অধিকাংশ বাক্যে কোনো বিরাম চিহ্ন নেই। বাকি প্রশ্নগুলোতে অতিমাত্রায় সেমিকোলন চিহ্ন ব্যবহার করা হয়েছে। এছাড়া বেশ কিছু প্রশ্নের স্পেস দেয়া নেই।

প্রশ্নের অসঙ্গতি বিষয়ে জানতে চাইলে সংশ্লিষ্ট ইউনিটের সমন্বয়কারী প্রফেসর ড. নুরুন নাহার বলেন, কমিটির কিছু অভ্যন্তরীণ সমস্যা ও টেকনিক্যাল কারণে প্রশ্নপত্রে কিছু অনিচ্ছাকৃত ভুল থেকে যেতে পারে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. রাশিদ আসকারী বলেন, ইউনিট সমন্বয়কারীদের দুর্বলতার কারণে কিছু অনিচ্ছাকৃত ভুল হয়েছে বলে আমি শুনেছি। তবে কোনো দুর্নীতি ছাড়াই পরীক্ষা সুষ্ঠু হয়েছে।

LEAVE A REPLY