সোসাইটিনিউজ ডেস্ক: জেলা জুড়ে দেশীয় জাতীয় মিষ্টি কুমড়ার বাম্পার ফলন হয়েছে। যা বাণিজ্যিক ভিত্তিতে মিষ্টি কুমড়া চাষে ঝুঁকছেন নীলফামারীর কৃষকরা। দেশি জাতের এই মিষ্টি কুমড়া বাজারে চাহিদা থাকায় কৃষকদের আবাদে উৎসাহ যুগিয়েছে । পাশাপাশি স্থানীয় হাটবাজারের চাহিদা মিটিয়ে এই মিষ্টি কুমড়া ঢাকা, চট্টগ্রামের বাজারের বিক্রি হচ্ছে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্র জানায়, ২০১৪ মৌসুমে নীলফামারী জেলায় ৩৪০হেক্টর জমিতে মিষ্টি কুমড়া আবাদ করেছেন কৃষকরা। যেখানে ২০১৩ সালে ৩২৫হেক্টর, ২০১২সালে ২৮০হেক্টর এবং ২০১১মৌসুমে ২৭৩হেক্টর জমিতে মিষ্টি কুমড়া চাষাবাদ করা হয়।

নীলফামারী সদর উপজেলার ইটাখোলা ইউনিয়নের ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের আব্দুল মতিন, চার বিঘা জমিতে আবাদ করেছেন দেশী জাতীয় মিষ্টি কুমড়া। চার বিঘায় ২০ হাজার টাকা খরচ করে এ পর্যন্ত তিনি ৩০ হাজার টাকার টাকার মিষ্টি কুমড়া বিক্রি করেছেন। এখনও প্রায় ১৫ হাজার টাকার কুমড়া বিক্রি করতে পারবেন।

অপর দিকে মিষ্টি কুমড়া আবাদ ও বিক্রি করে লাভের কথা জানান, নুর বানু। তিনি জানান, গত কয়েক বছর ধরে মিষ্টি কুমড়া চাষ করছি। উৎপাদন ভাল, বাজারে চাহিদা থাকায় লোকসান হয়নি। মিষ্টি কুমড়া আবাদ কারী কৃষকরা জানান স্থানীয় বাজারে মিষ্টি কুমড়ার চাহিদা মিটিয়ে এখানকার কুমড়া ঢাকা ও চট্টগ্রামের যাচ্ছে।

নীলফামারী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক এসএম সিরাজুল ইসলাম জানান, দেশি জাতের মিষ্টি কুমড়া অত্যন্ত সুস্বাদু, বাজারে দাম ভাল থাকায় কৃষকরা কুমড়া চাষাবাদে ঝুঁকছেন। যার কারণে গত বছরের চেয়ে এবার আবাদ বেশি হয়েছে।

তিনি জানান, কৃষি অফিস সার্বিক ভাবে মিষ্টি কুমড়া চাষে স্থানীয়দের প্রয়োজনীয় পরামর্শ এবং সেবা দেয়া হচ্ছে। আগামীতে আরও চাষাবাদ বাড়বে।
সূত্র: নর্দার্ণ নিউজ

LEAVE A REPLY