অধিগ্রহণকৃত জমির ক্ষতিপূরণ ৩ গুণ বৃদ্ধি

সোসাইটিনিউজ ডেস্ক:
অধিগ্রহণের ক্ষতিপূরণ ৩ গুণ বৃদ্ধি করে সোমবার এক আইনের খসড়ায় অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। পাবলিক পারপাস ও পাবলিক ইন্টারেস্টে জমি অধিগ্রহণের ক্ষেত্রে ক্ষতিপূরণের এ আইন প্রযোজ্য হবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে বাংলাদেশ সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার নিয়মিত সাপ্তাহিক বৈঠকে মন্ত্রিসভার নিয়মিত সাপ্তাহিক বৈঠকে ক্ষতিপূরণ সম্পর্কিত আইনের খসড়ায় এ অনুমোদন দেয়া হয়।

অবশ্য এই আইনের বিভিন্ন দিক ও শব্দগত বিষয়ে আরো ব্যাখ্যার জন্য আইনমন্ত্রীর নেতৃত্বে এবং ভূমি ও প্রতিরক্ষ মন্ত্রণালয়ের সচিবদ্বয়কে সদস্য করে একটি কমিটি গঠন করা হয়। প্রয়োজনে এ কমিটি আরো সদস্য অন্তর্ভুক্ত করতে পারবে।

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের ব্রিফকালে বলেন, আইনটি ১৯৮২ সালের ভূমি অধিগ্রহণ আইনের প্রতিস্থাপন। এটি ২০১০ সালে উচ্চ আদালত কর্তৃক সামরিক শাসনামলে জারিকৃত আইন বাতিলের অন্তর্ভুক্ত।

সচিব বলেন, বর্তমান আইনে জমি অধিগ্রহণের জন্য জমির মূল্যের দেড় গুণ ক্ষতিপূরণ দেয়া হয়। কিন্তু প্রস্তাবিত আইনে ক্ষতিপূরণের পরিমাণ ৩ গুণ করা হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে এটি বাংলায় অনুবাদ করে মন্ত্রিসভায় পেশ করা হয়।

তিনি বলেন, আইনমন্ত্রীর নেতৃত্বাধীন কমিটি সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশনা মোতাবেক পাবলিক পারপাস ও পাবলিক ইন্টারেস্ট শব্দ দুটির যথার্থ ব্যাখ্যা নির্ধারণ করবে।

শফিউল আলম বলেন, মন্ত্রিসভা ১৯৭২ সালের বাংলাদেশ কলেজ অব ফিশিশিয়ান এ্যান্ড সার্জন অর্ডার আইনটির স্থলে বাংলা ভাষায় বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ান এ্যান্ড সার্জন এ্যাক্ট-২০১৬ অনুমোদন করেছে।
সচিব বলেন, নতুন আইনটি শিক্ষা ও প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বিশেষজ্ঞ চিকিসা ব্যক্তিত্ব তৈরি করে স্বাস্থ্য সেবা খাতে উন্নয়নে সহায়তা করবে।

তিনি বলেন, এতে এফসিপিএস ও এমসিপিএস পরীক্ষা ও কৃতকার্য শিক্ষার্থীদের সনদ প্রদানে ২০ সদস্যের কাউন্সিল অব দ্য কলেজ এবং কলেজের কর্মকান্ড পরিচালনায় ৭ সদস্যের নির্বাহী কমিটি গঠনের প্রস্তাব রয়েছে।

কাউন্সিলের অন্যান্য কর্মকান্ডের সঙ্গে বিভিন্ন পরীক্ষার জন্য এক্সিমিনিশন বোর্ড নিয়োগের ক্ষমতা থাকবে। কাউন্সিল চার বছরের জন্য ১৬ জন সদস্য ফেলো সরকার নিয়োগকৃত ৪ জনকে নিয়ে গঠিত হবে। সভাপতি, সিনিয়র সহ-সভাপতি, সহ-সভাপতি ও কোষাধ্যক্ষ সদস্যদের ভোটে ২ বছরের জন্য নির্বাচিত হবেন।

কাউন্সিল স্নাতকোত্তর কোর্স, গবেষণা কার্যক্রম, প্রশিক্ষণ, সিম্পোজিয়াম, কর্মশালা, প্রদর্শনী ও আলোচনার আয়োজন করবে।

বৈঠকে পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক (সংশোধনী) অধ্যাদেশ ২০১৬ অনুমোদিত হয়।

বৈঠকের শুরুতে কিউবার নেতা ফিদেল ক্যাস্ট্রোর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে একটি শোক প্রস্তাব গৃহীত হয়।
সূত্র:বাসস

LEAVE A REPLY