আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিই তো ছোটবেলায় চা বিক্রি করতেন। তারপর রাজনীতিতে প্রবেশ। সেখান থেকে গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী। পরে একেবারে দেশের প্রধানমন্ত্রী হয়ে গেলেন। সেটা পুরনো কথা। তবে নতুন করে চা বিক্রেতা থেকে মুখ্যমন্ত্রী হয়ে আলোচনায় এসেছেন ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য তামিলনাড়ুর নতুন মুখ্যমন্ত্রী পনিরসেলভাম।

গতকাল সোমবার ছয়বারের মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতা জয়রামের মৃত্যুর পরপরই নতুন মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন পনিরসেলভাম। তিনি এক সময় চা বিক্রি করতেন।
আজ মঙ্গলবার হিন্দুস্তান টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তামিলনাড়ুর ১৯তম মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়া অল ইন্ডিয়া আন্না দ্রাবিড় মুনেত্রা কাজাগামের (এআইএডিএমকে) নতুন নেতা পনিরসেলভাম ১৯৭০ সালে চা বিক্রি করা শুরু করেন।
প্রতিবেদনে বলা হয়, পনিরসেলভামের জন্ম তামিলনাড়ুর থেনি জেলার পেরিয়াকুলাম শহরে। তিনি থেভর সম্প্রদায়ের সদস্য। ১৯৭০ সালে বন্ধু বিজয়ানের সঙ্গে যৌথভাবে পিভি ক্যানটিন নামে একটি চায়ের দোকানের ব্যবসা শুরু করেন তিনি। ১০ বছর চা বিক্রির ব্যবসা চালানোর পর ভাই রাজার হাতে দোকানটি ছেড়ে দেন। ভাই রাজার মেয়ে রোজি দুর্ঘটনায় নিহত হওয়ার পর পিভি ক্যানটিনের নতুন নাম হয় রোজি ক্যানটিন। এখনো এই ক্যানটিনে চা বিক্রি করা হয়।
৬৫ বছর বয়সী পনিরসেলভামের রাজনৈতিক জীবন শুরু হয় ১৯৯৬ সালে। তখন তিনি পেরিয়াকুলাম পৌরসভার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।
২০০১ সালে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে জয়ললিতাকে মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করতে হয়। তখন মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছিলেন এই চা বিক্রেতা পনিরসেলভাম। ২০১৪ সালে এক মামলায় কারাগারে যেতে হয় জয়ললিতাকে। তখনো রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর ভার নিয়েছিলেন পনিরসেলভাম।
জয়ললিতার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত হওয়ার পর তাঁর দল এআইএডিএমকে নতুন নেতা হিসেবে সেই পনিরসেলভামকে নির্বাচিত করে।

LEAVE A REPLY