বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের চূড়ান্ত পর্বের এলিমিনেটর ম্যাচে ড্যারেন স্যামির বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে চিটাগাং ভাইকিংসকে ৩ উইকেটে হারিয়েছে রাজশাহী কিংস।

আজ মঙ্গলবার মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে চিটাগাংয়ের দেয়া ১৪৩ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ৩ উইকেট হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় রাজশাহী।

টসে হেরে ব্যাটিং করতে নেমে তামিমের ফিফটি ও ক্রিস গেইলের ঝড়ো ৪৪ রানের উপর ভর করে ১৪২ রান করে চিটাগাং।

দলের হয়ে ব্যাটিং শুরু করতে নামেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল ও ডোয়াইন স্মিথ। প্রথম ওভার থেকে ২ রান সংগ্রহ করে ভাইকিংস। ইনিংসের তৃতীয় ওভারে উইলিয়ামসের বলে স্যামির হাতে ধরা পড়েন স্মিথ। দলীয় ৮ রানের মাথায় প্রথম উইকেট হারায় চিটাগং।

এরপর ব্যাটিংয়ে নেমে ব্যাটে ঝড় তুলেন ক্রিস গেইল। ইনিংসের ১১তম ওভারে ফ্রাঙ্কলিনের বলে বিদায় নেন তিনি। ক্যারিবীয় এই ব্যাটিং দানব আউট হওয়ার আগে করেন ৪৪ রান। উইকেটে থেকে ক্রিস গেইল ৩০ বল মোকাবেলা করেন। ফরহাদ রেজার হাতে ধরা পড়ার আগে দুটি চারের সঙ্গে গেইলের ব্যাট থেকে আসে ৫টি বিশাল ছক্কা।

১৪৩ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুর দিকে শুভাশিস রায়ের বলে ক্যাচ দিয়ে আউট হন মুমিনুল হক (৪)। আর পরের ওভারের প্রথম বলে আব্দুর রাজ্জাকের বলে শূন্য রানে আউট হন নতুন ব্যাটসম্যান আফিফ হোসেন। এরপর ব্যাট হাতে জ্বলে উঠতে পারেননি সাব্বির রহমান। ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারে শুভাশিস রায়ের বলে মোহাম্মদ নবীর হাতে ধরা পড়ার আগে সাব্বির করেন ১১ রান। দলীয় ৩৯ রানের মাথায় তৃতীয় উইকেট হারায় রাজশাহী।

এরপর দলের হাল ধরার চেষ্টা করেন সামিত প্যাটেল এবং নুরুল হাসান সোহান। ইনিংসের দশম ওভারে মোহাম্মদ নবী বোল্ড করে ফেরান ৫ রান করা প্যাটেলকে। দলীয় ৫৩ রানের মাথায় টপঅর্ডারের চার ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে ফেলে রাজশাহী।

দলীয় ৫৫ রানের মাথায় বিদায় নেন সেট ব্যাটসম্যান নুরুল হাসান সোহান। এ অবস্থায় দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেন অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি। মেহেদি হাসান মিরাজকে নিয়ে দারুণ জুটি গড়েন। শেষ পর্যন্ত ড্যারেন স্যামির ঝড়ো ফিফটির উপর ভর করেই জয় পায় রাজশাহী।

LEAVE A REPLY