বাংলাদেশে লিডারশিপ প্রোগ্রাম বা নেতৃত্ব কর্মসূচি বাস্তবায়নে ব্যাপক সফলতা অর্জনের ধারাবাহিকতায় আগামী ২০১৭ সালে ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক অব কঙ্গো বা গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্রী কঙ্গোতে (ডিআরসি) দি ফিউচার লিডারস প্রোগ্রাম (দি এফএলপি) অনুষ্ঠিত হবে।

এফএলপি হচ্ছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক দি ফিউচার লিডারস লিমিটেডের (দি এফএলএল) ফ্ল্যাগশিপ প্রোগ্রাম বা প্রধান কর্মসূচি। অ্যাপ্রেন্টিস স্টাইল বা শিক্ষানবিসদের শেখানোর মতো কায়দায় বাংলাদেশের বিভিন্ন পাবলিক ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক পর্যায়ে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থী ও সাম্প্রতিক সময়ে স্নাতক পাস করা (graduating and recent graduates) ব্যক্তিদের দক্ষতা উন্নয়নে ২০১২ সালে এই কর্মসূচি চালু করা হয়।

সেই থেকে এফএলএল ইউকে দেখিয়ে আসছে কীভাবে উদ্ভাবনের মাধ্যমে উৎকর্ষ অর্জন এবং নৈতিক ও পরিবেশগত বিষয়গুলোকে গুরূত্ব দিয়ে ব্যবসাকে টেকসই করে তুলতে হয়।

এফএলপি আত্মকর্মসংস্থান ও মজুরি বা বেতনভিত্তিক কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে দক্ষতার যে ঘাটতি রয়েছে তা সবচেয়ে সৃজনশীল উপায়ে চিহ্নিত করা এবং লিডারশিপ ও এন্ট্রাপ্রিনিউরশিপ বা নেতৃত্ব ও উদ্যোক্তা হিসেবে আত্মপ্রকাশের উপায় শিখিয়ে আসছে, যাতে দক্ষতার চাহিদা মেটানো যায়।

যুক্তরাজ্যের বার্মিংহামে নিযুক্ত ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক অব কঙ্গোর (ডিআরসি) অনারারি কনসাল মি. ফ্রাঙ্ক টি লুয়াবা এফএলপি সম্পর্কে বিস্তারিত জানার জন্য লন্ডনে এফএলএল টিমের সঙ্গে আলোচনায় মিলিত হন। সে আলোকে তিনি সম্প্রতি বাংলাদেশ সফর করেন। বাংলাদেশে এফএলপি কেমন প্রভাব ফেলেছে তা জানা এবং ডিআরসি তথা কঙ্গোর যুবসমাজের জন্য একই ধরনের কর্মসূচির সম্ভাবনা কী রকম হতে পারে সেই ধারণা নিতেই তার এই বাংলাদেশ সফর।

দি ফিউচার লিডারস লিমিটেড (দি এফএলএল) ইউকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মি. নাজির আলম এবং বার্মিংহামে নিযুক্ত ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক অব কঙ্গোর অনারারি কনসাল মি. ফ্রাঙ্ক টি লুয়াবা ঢাকার গুলশান-২ এর ফোর পয়েন্টস শেরাটন হোটেলে একটি সমঝোতা স্মারকে সই করেন।

ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক অব কঙ্গোর জন্য যথোপযুক্ত এফএলপি কর্মসূচি গ্রহণ ও তা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে এই সমঝোতা স্মারক সই করা হয়।

মি. ফ্রাঙ্ক টি লুয়াবা বলেন, আমি এখন অনুধাবন করি যে এফএলপি একজন ব্যক্তির জীবন বদলে দিতে পারে এবং একটি দেশকে অর্থপূর্ণ উন্নয়নের দিকে এগিয়ে নিয়ে যায়। সেজন্য আমরাও কঙ্গোতে সরকারি-বেসরকারি যৌথ উদ্যোগের মাধ্যমে এফএলপি বাস্তবায়নে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

দি ফিউচার লিডারস লিমিটেড ইউকের সিইও মি. নাজির আলম বলেন, আমরা দক্ষতার সমন্বয় ঘটানোর মাধ্যমে ব্যক্তিগত ও পেশাগত উন্নতি সাধনের সুযোগ তৈরি করে দিতে নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। যাতে তারা জাতীয় ও অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনের অভীষ্ট লক্ষ্য নিয়ে কাজ করতে পারে। এ ক্ষেত্রে আমাদের দুটি অতুলনীয় মডেল হলো যথাক্রমে ফিউচার লিডারস প্রোগ্রামস বা ভবিষ্যত নেতৃত্ব কর্মসূচি (এফএলপি) এবং এক্সিলেন্স ইন এন্ট্রাপ্রিনিউরশিপ প্রোগ্রাম বা উদ্যোক্তা উন্নয়নে উৎকর্ষ কর্মসূচি (ইইপি)।

আশা করি, আমাদের নির্দেশনা অনুযায়ী এফএলপি ডিআরসি বা কঙ্গোর জাতীয় উন্নয়নে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখবে।

LEAVE A REPLY