মুহুরির চর নিয়ে বিরোধ নিষ্পত্তির আহ্বান

ত্রিপুরার বিলোনিয়া সীমান্ত সংলগ্ন মুহুরির চর নিয়ে বিরোধ নিষ্পত্তির জন‌্য যৌথ জরিপের মানচিত্রে অবিলম্বে সই করতে ভারতের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশ।

মঙ্গলবার নয়া দিল্লিতে দুই দেশের স্বরাষ্ট্র সচিব পর্যায়ের বৈঠকে বাংলাদেশের মোজাম্মেল হক খান ভারতের রাজীব মহর্ষির উদ্দেশ‌্যে এই আহ্বান জানান।

দিল্লিতে বাংলাদেশ হাই কমিশনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দুই দেশের কারাগারে আটক আসামি বিনিময় দ্রুততর করার বিষয়েও আলোচনা হয় বৈঠকে।

muhurir-chor

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণ, চোরাচালান, মাদক পাচার এবং পরোয়ানাভুক্ত আসামিদের সীমান্ত পেরিয়ে পালিয়ে যাওয়া ঠেকানোর বিষয়েও কথা হয় দুই পক্ষের মধ‌্যে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “মুহুরির চরের ভূমি হস্তান্তরে মানচিত্রে অবিলম্বে সই করার আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশ।”

বাংলাদেশিদের ভারত ভ্রমণের ক্ষেত্রে যাওয়া ও আসার সময় যে কোনো বিমানবন্দর বা স্থলবন্দর ব‌্যবহারের সুযোগ দিতেও বৈঠকে আহ্বান জানানো হয় বলে জানানো হয় সেখানে।

২০১১ সালে ভারতের তখনকার প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের ঢাকা সফরের সময় দুই দেশের মধ‌্যে স্থলসীমানা চিহ্নিত করার পাশাপাশি ছিটমহল ও অপদখলীয় ভূমি বিনিময়ের বিষয়ে প্রোটোকল স্বাক্ষরিত হয়।

সে অনুযায়ী গত বছর ৩১ আগস্ট মধ্যরাতে দুই দেশের মধ‌্যে ১৬২টি ছিটমহল মিনিময় হলেও মুহুরির চর নিয়ে সমস্যা থেকে যায়।

ওই চুক্তি অনুযায়ী মুহুরির চরের একটি অংশ বাংলাদেশের পাওয়ার কথা। কিন্তু দুই দেশের যৌথ জরিপে বিলোনিয়া শহরকে কেন্দ্র করে মুহুরি নদীর চরের সীমানা যেভাবে চিহ্নিত করা হয়েছে, তা নিয়ে আপত্তি জানিয়ে আসছে ত্রিপুরা রাজ‌্য সরকার।

মুহুরির চর নিয়ে বিরোধ মীমাংসার জন‌্য দুই দেশের কর্মকর্তারা কয়েক দফা বৈঠক করলেও সমাধান আসেনি।

LEAVE A REPLY