সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার দেশের উভয় পুঁজিবাজারে মূল্য সূচকের উত্থান ধারায় লেনদেন শেষ হয়েছে।

এদিন সব ধরণের সূচকের পাশাপশি বেড়েছে লেনদেন হওয়া বেশির ভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের দর। একই সঙ্গে বেড়েছে টাকার অংকে লেনদেনের পরিমাণও। দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন ছাড়িয়েছে ১১শ’ কোটি টাকা। চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) ছিল একই চিত্র।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, বৃহস্পতিবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের চেয়ে ২১ পয়েন্ট বেড়ে ৪ হাজার ৮৯২ পয়েন্টে, ডিএসইএস শরিয়াহ সূচক ৩ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ১৬১ পয়েন্টে এবং ডিএস৩০ সূচক ২ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৭৯৫ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

ডিএসইতে আজ মোট ১ হাজার ১৪৯ কোটি ৮৩ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ড ইউনিট লেনদেন হয়েছে। যা গতকালের চেয়ে ২৮৫ কোটি টাকা বা ২৪ দশমিক ৮০ শতাংশ বেশি। বুধবার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ৮৬৪ কোটি টাকার শেয়ার।

ডিএসইতে আজ মোট ৩২৫টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ড ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে বেড়েছে ১৫১টির, কমেছে ১২৫টির, অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৯টির শেয়ার দর।

অপরদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএসসিএক্স ৪১ পয়েন্ট বেড়ে ৯ হাজার ১৫১ পয়েন্টে অবস্থান করছে। এছাড়া সিএসই৫০ সূচক ৩ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ১০৫ পয়েন্টে, সিএসই৩০ সূচক ৩২ পয়েন্ট বেড়ে ১৩ হাজার ৪০৬ পয়েন্টে, সিএএসপিআই সূচক ৭৭ পয়েন্ট বেড়ে ১৫ হাজার ৭৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। পাশাপাশি সিএসআই শরিয়াহ সূচক ২ পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ৪৯ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

সিএসইতে এদিন লেনদেন হয়েছে মোট ৫৮ কোটি টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ড ইউনিট। আর সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৫৫টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ড ইউনিট। এরমধ্যে দাম বেড়েছে ১৪৮টির, কমেছে ৭৩টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩১টি কোম্পানির শেয়ার দর।

LEAVE A REPLY