পৃথিবীর কক্ষপথ প্রদক্ষিণ করা প্রথম মার্কিন নভোচারী জন গ্লেন মারা গেছেন। যুক্তরাষ্ট্রের ওহাইওর একটি হাসপাতালে স্থানীয় সময় গতকাল বৃহস্পতিবার তিনি তার মৃত্যু হয়। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯৫ বছর।

জন গ্লেন প্রথম আমেরিকান নভোচারী যিনি পৃথিবী প্রদক্ষিণ করেন। ১৯৬২ সালে স্পেস ক্যাপসুল ফ্রেন্ডশিপ সেভেনে চড়ে পৃথিবী প্রদক্ষিণ করেন। ১৯৯৮ সালে তিনি আবার মহাকাশে যান। ওটাই ছিল তাঁর সর্বশেষ মহাকাশ গমন। তখন তার বয়স ছিল ৭৭। আর সবচেয়ে বেশি বয়সে মহাকাশে যাওয়ার রেকর্ডটি তারই।

বিবিসি জানিয়েছে, এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে জন গ্লেন ওহাইও স্টেট ইউনিভার্সিটির জেমস ক্যানসার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তবে তার কী অসুখ ছিল তা জানায়নি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।সম্ভবত ভার্জিনিয়াতে জন গ্লেনের দাফন সম্পন্ন করা হবে। ১৯২১ সালে গ্লেন জন্মগ্রহণ করেন। যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসায় যোগ দেওয়ার আগে গ্লেন পাইলট ছিলেন। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলেন তিনি।

১৯৬২ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি তিনি মহাকাশ যাত্রা করেন। ওই যাত্রায় তিনি পৃথিবীকে প্রদক্ষিণ করে আসেন।সত্তরের দশকে নাসা ছেড়ে রাজনীতিতে যোগ দেন গ্লেন। তিনি ডেমোক্রেটিক পার্টির সদস্য ছিলেন। ১৯৭৪ সালে তিনি সিনেটর নির্বাচিত হন। ১৯৯৯ সাল পর্যন্ত তিনি এ দায়িত্ব পালন করেন।

২০১১ সালে জন গ্লেনকে যুক্তরাষ্ট্রের সর্বোচ্চ বেসামরিক পদক কংগ্রেসনাল গোল্ড মেডেল দেওয়া হয়। এক বছর পর প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা তাঁকে প্রেসিডেনসিয়াল মেডেল অব ফ্রিডমে ভূষিত করেন।মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বলেছেন, বাধা বিপত্তি ভাঙতে নিজের জীবনের সময় ব্যয় করেছেন জন গ্লেন।সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে নাসা লিখেছে, একজন সত্যিকারের আমেরিকান হিরো।

LEAVE A REPLY