কুড়িগ্রামে “ভুমি ও রেজিস্ট্রি সেবা” নামে মোবাইল অ্যাপসের উদ্বোধন করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে জেলা প্রশাসক হলরুমে মোবাইল অ্যাপসের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক খান মোঃ নুরুল আমিন। এসময় জেলা প্রশাসনের কর্মকর্র্তাসহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।
ভুমি ও রেজিস্ট্রি সেবা নামে এই অ্যাপস মোবাইলে ব্যবহার করে দলিলের ফরমেট, দলিল রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতি, দলিল রেজিস্ট্রি খরচ, দলিলের নকল বা সাটিফাইট কপি প্রাপ্তিসহ ভুমি সংক্রান্ত রেজিস্ট্রি অফিসের সকল তথ্য পাওয়া যাবে। এতে তথ্য পেতে ভুমির মালিকদের সময় ও খরচ কমে যাবে।
অ্যানড্রোয়েড মোবাইলের প্লে স্টোরে বাংলায় ভুমি ও রেজিস্ট্রি সেবা লিখে সার্চ দিলে অ্যাপসটি বিনামুল্যে পাওয়া যাবে।
এই অ্যাপসটি তৈরি করেন ভুরুঙ্গামারী উপজেলা সাব রেজিষ্ট্রার মোঃ শাহজাহান আলী।
অ্যাপসের নির্মাতা ভুরুঙ্গামারী উপজেলা সাব রেজিষ্ট্রার মোঃ শাহাজাহান আলী জানান, ভুমি ও রেজিস্ট্রি সংক্রান্ত তথ্য প্রাপ্তি সহজীকরনের জন্য ভুমি ও রেজিস্ট্রি সেবা নামক মোবাইল অ্যাপস এবং ওয়েবসাইট তৈরি করেছি। এতে রেজিস্ট্রি অফিসের বিভিন্ন তথ্য যেমন বিভিন্ন প্রকার দলিলের ফরমেট, দলিল রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতি, বিভিন্ন প্রকার দলিলের রেজিস্ট্রি খরচ, দলিলের নকল বা সার্টিফাইড কপি প্রাপ্তির নিয়ম এবং এর জন্য ফিসের হার, বিবাহ রেজিস্ট্রির নিয়ম ও রেজিস্ট্রি ফিস ইত্যাদি তথ্য ও পরামর্শ পাওয়া যাবে। এ অ্যাপসে রেজিস্ট্রি অফিসে কাজের মাধ্যমে অর্জিত অভিজ্ঞতা ও বিভিন্ন উৎস থেকে সংগ্রহ করে তুলে ধরেছি। আমি নিঃসন্দেহে বলতে পারি এই অ্যাপস থেকে সাধারণ মানুষ উপক্রিত হবেন। এতে করে রেজিস্ট্রি অফিসের সেবা পেতে সাধারণ মানুষের মূল্যবান সময়, ব্যয় ও যাতায়াত খরচ কমে যাবে। বর্তমানে বেশিরভাগ তথ্য ও পরামর্শের জন্য আইনজীবি দলিল লেখক বা দালালের উপর নির্ভর করতে হয়। এ অ্যাপসের মাধ্যমে তথ্য সংগ্রহ করলে সাধারণ মানুষকে আর হয়রানীর শিকার হতে হবে না।
জেলা প্রশাসক খান মোঃ নুরুল আমিন বলেন, বর্তমান সরকার ইনভিশনের উপর খুবই গুরুত্ব দিয়েছে। ইনভিশন হলো অল্প সময় ও অল্প খরচে মানুষকে সেবা দেয়া। আমাদের জেলা থেকে ইতিমধ্যেই সাব রেজিস্ট্রার শাহাজাহান আলী ভুমি ও রেজিস্ট্রি সংক্রান্ত তথ্য প্রাপ্তি সহজীকরনের জন্য ভুমি ও রেজিস্ট্রি সেবা নামক মোবাইল অ্যাপস নির্মাণ করেছে। আমরা এখন থেকে ভুমি সংক্রান্ত সকল তথ্য এ মোবাইল অ্যাপসের মাধ্যমে জানতে পারবো।

LEAVE A REPLY