ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সহ-সম্পাদক দিয়াজ ইরফান চৌধুরীর মরদেহ পুনরায় ময়নাতদন্তের জন্য কবর থেকে আজ ভোরে উত্তোলন করা হয়েছে। বর্তমানে মরদেহটি ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে আসা হচ্ছে।

শনিবার সকালে সিআইডি চট্টগ্রাম জোনের এএসপি ও তদন্তকারী কর্মকর্তা অহিদুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এ তদন্তকারী কর্মকর্তা বলেন, সকাল সাড়ে ৭টায় তার পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদস্থ কবর থেকে দিয়াজের মরদেহ উত্তোলন করা হয়। এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আফসানা বিলকিস, হাটহাজারী থানার পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও সিআইডির টিম উপস্থিত ছিলেন।

তিনি আরো বলেন, মরদেহ উত্তোলনের পরপরই অ্যাম্বুলেন্সের মাধ্যমে ঢাকা মেডিকেল কলেজে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। তবে কতদিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়া যেতে পারে তা ঢাকা মেডিকেলের ফরেনসিক বিভাগের ওপর নির্ভর করছে।

diaz-irfan

এর আগে মঙ্গলবার (০৬ ডিসেম্বর) চট্টগ্রামের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শিবলু কুমার দে তদন্তের জন্য দিয়াজের মরদেহ তোলার আদেশ দেন। একইসঙ্গে তিন সদস্যের বিশেষজ্ঞ টিম গঠন করে ময়নাতদন্ত সম্পন্ন করার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজের ফরেনসিক বিভাগের প্রধানকে নির্দেশ দেয়া হয়।

উল্লেখ্য, গত ২০ নভেম্বর রাত সাড়ে ৯টার দিকে নিজ বাসায় ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় দিয়াজের মরদেহ দেখা যায়। রাত সাড়ে ১২টায় পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে।

২৩ নভেম্বর দিয়াজের ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এতে দিয়াজের মৃত্যু আত্মহত্যাজনিত কারণে হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়। তবে দিয়াজের পরিবার তা প্রত্যাখান করে তাকে হত্যা করে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে দাবি করে।

পরবর্তীতে গত ২৪ নভেম্বর চট্টগ্রামের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শিবলু কুমার দের আদালতে দিয়াজের মা জাহেদা আমিন বাদী হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর আনোয়ার চৌধুরী ও চবি ছাত্রলীগের সভাপতি আলমগীর টিপুসহ ১০ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন।

LEAVE A REPLY