আন্তর্জাতিক ডেস্ক

দুর্নীতির অভিযোগে ভারতের বিমানবাহিনীর সাবেক প্রধান এসপি তিয়াগিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রীসহ ভিভিআইপিদের জন্য হেলিকপ্টার কেনায় দুর্নীতির অভিযোগে গতকাল শুক্রবার তাকে আটক করা হয়। তাঁর জ্ঞাতি ভাই সঞ্জীব তিয়াগি ও আইনজীবী গৌতম খাইতানকেও গ্রেপ্তার করেছে ভারতের সেন্ট্রাল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (সিবিআই)।

হেলিকপ্টার ক্রয়ে দুর্নীতির অভিযোগে তিন বছর আগে এসপি তিয়াগিসহ ১৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা করে সিবিআই। এর মধ্যে কয়েকজন ইউরোপীয় মধ্যস্থতাকারী ও এসপি তিয়াগির পরিবারের সদস্যও রয়েছেন।
কংগ্রেস সরকারের সময়ে যুক্তরাজ্যভিত্তিক হেলিকপ্টার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অগাস্টাওয়েস্টল্যান্ডের সঙ্গে হেলিকপ্টার কেনার ব্যাপারে একটি চুক্তি হয়। এতে ৩ হাজার ৬০০ কোটি রুপি মূল্যে ভিভিআইপি হেলিকপ্টারগুলো বেচাকেনার ব্যাপারে একমত হয় উভয় পক্ষ। তবে অভিযোগ উঠেছে, ওই সময় ভারতীয় কয়েকজন কর্মকর্তা ও রাজনীতিক ঘুষ নিয়ে চুক্তিটি সম্পাদনে প্রভাবক হিসেবে কাজ করেছেন। বিশেষ করে ২০০৪ থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত ভারতীয় বিমানবাহিনীর প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করা এসপি তিয়াগির বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি নিজের পদ ব্যবহার করে দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দিয়েছেন।
অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে কয়েক ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদের পর সিবিআইয়ের পরিচালক রাকেশ আস্থানা এই তিনজনকে গ্রেপ্তার করেন। গত সপ্তাহে সিবিআইয়ের অন্তর্বর্তী প্রধান নিযুক্ত হওয়ার আগে হেলিকপ্টার ক্রয়ে দুর্নীতির অভিযোগ তদন্তে তিনিই নেতৃত্ব দিয়েছেন।

বিমান বাহিনী প্রধানকে গ্রেফতারের বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেনি সিবিআই বা সরকারের কোনো বিভাগ।

LEAVE A REPLY