রংপুরে নুরুজ্জামান বাবু (৩০) নামের এক পত্রিকা বিক্রেতাকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। গত বুধবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে পুলিশ তাঁর লাশ উদ্ধার করে।

রংপুরের বাহার কাছনা জুম্মাটারী এলাকার বাসিন্দা ছিলেন নুরুজ্জামান। তাঁর বাবার নাম মনিরুজ্জামান। রংপুর পত্রিকা হকার সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত হোসেন বলেন, প্রায় ১২ বছর ধরে নুরুজ্জামান রংপুর শহরে পত্রিকা বিক্রি করে আসছিলেন।

এ হত্যাকাণ্ডের কারণ সম্পর্কে পুলিশ তাৎক্ষণিক কিছু বলতে না পারলেও এলাকাবাসীর ধারণা, পূর্বশত্রুতার জের ধরে এ হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, রংপুর সিটি করপোরেশনের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের বাহার কাছনা জুম্মাটারী এলাকার একটি পুকুরপাড় থেকে নুরুজ্জামানের লাশ উদ্ধার করা হয়। গলায় ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। মাথায়ও জখম রয়েছে। রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্ত শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

নুরুজ্জামানের পরিবার ও মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিন সকাল ছয়-সাতটার মধ্যে পত্রিকা নেওয়ার জন্য প্রেসক্লাব এলাকায় যেতেন নুরুজ্জামান। পত্রিকা বিলি করতে করতে দেরি হলে দুপুরে বাড়িতে ফিরতেন না। তবে বিকেল পাঁচটার মধ্যে বাড়ি ফিরতেন। কিন্তু বুধবার সন্ধ্যা পেরিয়ে গেলেও তিনি বাড়ি ফেরেননি। তাঁর মুঠোফোনও বন্ধ পাওয়া যায়। অনেক খোঁজাখুঁজির পরও তাঁকে পাওয়া যায়নি। রাতে বাড়ির অদূরে একটি পুকুরপাড়ে নুরুজ্জামানের লাশ পড়ে থাকার খবর পাওয়া যায়। পরে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় নুরুজ্জামানের ছোট ভাই দুলাল মিয়া বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করে গতকাল দুপুরে কোতোয়ালি থানায় মামলা করেছেন।

LEAVE A REPLY