ঢাবি প্রতিনিধি

ঢাবি ছাত্রলীগের ১৮টি হলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের মধ্যে মাস্টার দ্যা সূর্যসেন হল ছাত্রলীগের সভাপতি হয়েছেন গোলাম সরোয়ার, সাধারণ সম্পাদক নাহিদ হাসান শাহিন। স্যার এ এফ রহমান হল ছাত্রলীগের সভাপতি হয়েছেন হাফিজুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হাসান তুষার।

শহিদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হল ছাত্রলীগের সভাপতি হয়েছেন সোহানুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক আসিফ তালুকদার। হাজি মুহাম্মদ মহসিন হল ছাত্রলীগের সভাপতি হয়েছেন জহিরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান সানী।

মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান হল ছাত্রলীগের সভাপতি হয়েছেন ইউসুফ উদ্দিন খান ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মাসুদ লিমন। পল্লীকবি জসিম উদদীন হল ছাত্রলীগের সভাপতি হয়েছেন সৈয়দ মো. আরিফ হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক সাহেদ খান।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল ছাত্রলীগের সভাপতি হয়েছেন রফিকুল ইসলাম বাধন ও সাধারণ সম্পাদক আল আমিন রহমান। সলিমুল্লাহ মুসলিম হল ছাত্রলীগের সভাপতি হয়েছেন তাহসান আহমেদ রাসেল ও সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান তাপস। ফজলুল হক হল ছাত্রলীগের সভাপতি হয়েছেন শাহারিয়ার সিদ্দিকী শিশিম ও সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান। অমর একুশে হল ছাত্রলীগের সভাপতি হয়েছেন আব্দুর রাজ্জাক রাজ ও সাধারণ সম্পাদক এহসান উল্লাহ।

শহীদুল্লাহ হক হল ছাত্রলীগের সভাপতি হয়েছেন শাকিব হাসান ও সাধারণ সম্পাদক আরিফ হাসান সিফাত। জগন্নাথ হল ছাত্রলীগের সভাপতি হয়েছেন সঞ্জীব চন্দ্র দাস ও সাধারণ সম্পাদক উৎপল বিশ্বাস। বিজয় একাত্তর হল ছাত্রলীগের সভাপতি হয়েছেন ফকির রাসেল ও সাধারণ সম্পাদক নয়ন হাওলাদার।

রোকেয়া হল ছাত্রলীগের সভাপতি হয়েছেন লিপি আক্তার ও সাধারণ সম্পাদক শ্রাবণী ইসলাম। শামসুন্নাহার হল ছাত্রলীগের সভাপতি হয়েছেন নিপু ইসলাম তন্বী ও সাধারণ সম্পাদক জিয়াসমিন শান্তা।

কবি সুফিয়া কামাল হল ছাত্রলীগের সভাপতি হয়েছেন ইফফাত জাহান ইশা ও সাধারণ সম্পাদক সারজিয়া সারমিন সম্পা। কুয়েত মৈত্রী হল ছাত্রলীগের সভাপতি হয়েছেন ফরিদা পারভিন ও সাধারণ সম্পাদক শ্রাবনী শায়লা। বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেচ্ছা ছাত্রলীগের সভাপতি হয়েছেন বেনজির হোসেন নিশি ও সাধারণ সম্পাদক রনক জাহান রাইন।

এদিকে দীর্ঘ তিন বছর পর ২৭ নভেম্বর রবিবার দিনব্যাপী প্রথমবারের মতো হল সম্মেলনের মাধ্যমে পুরনো কমিটি বিলুপ্তি করা হয়। ২০১৩ সালের ১ এপ্রিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোর কমিটি গঠন করে তৎকালীন ঢাবি ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদি হাসান মোল্লা ও সাধারণ সম্পাদক ওমর শরীফ। ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী শাখা কমিটির মেয়াদ এক বছর হলেও নানা ঝামেলায় তিন বছর শেষে এই কমিটি ঘোষণা করা হলো।

LEAVE A REPLY