কৃষি ডেস্ক:সবজিতে কৃষকরা যখন কীটনাশক প্রয়োগ করতে করতে  ক্লান্ত।  ঠিক সেই সময় নাটোর জেলা কৃষি সম্প্রসারনের কর্মকর্তাদের উদ্যোগে  শুরু হয়েছে বিষমুক্ত সবজি চাষ। একবিঘা জমিতে সবজি চাষে পোকা মাকড় দমনে কৃষকের  কিটনাশক  কিনতে খরচ লাগতো ১২ থেকে ১৫ হাজার টাকা। কিক্তু এখন সেক্স ফেরোমেন পদ্ধতিতে ফসল উৎপাদন বিঘাপ্রতি খরচ নেমে এসেছে  ছয়শত টাকা। সেক্স ফেরোমেন ফাঁদ ব্যবহার করে কৃষকরা পাচ্ছেন অভাবনীয় সফল্য।

সবজি  ক্ষেতে গিয়ে দেখা যায়, কিটনাশকের পরিবর্তে কৃষক সেক্স ফেরোমেন ব্যবহার করছেন। এতে সবজি ক্ষেতে পোকার আক্রমন একেবারে কমে গেছে। পোকা নিধনে প্রয়োজন পরছেনা কোন প্রকার বিষ! সদর উপজেলার  কয়েকজন কৃষক জানান, কোনভাবে ফসল থেকে পোকা দমন করতে পারছিলাম না। ডিলার ও কিটনাশক কোম্পানির প্রতিনিধিদের দেয়া বিষে একদিকে যেমন উৎপাদন খরচ বৃদ্ধি পেয়েছে। অপর দিকে বিষের ভায়াবহ প্রভাবে দিন দিন অসুস্থ হয়ে পরছি নিজেরা।

একই  এলাকার কৃষক আব্দুল মতিন  জানায়, সে প্রতিবছর ফুল কফি ও বাধা কফি সহ বিভিন্ন শীতকালীন সবজি চাষ করেন। কিন্তু এসব সবজি চাষে পোকার আক্রমন হয় প্রচুর। পোকা দমনে রাসয়নিক কীটনাশক  প্রয়োগ ছাড়া কোন উপায় থাকে না। এতে যেমন খরচ অনেক  বেশি লাগে । অপর দিকে আমরা প্রতিনিয়ত বিষের ব্যবহার করতে করতে বিভিন্ন দুরারোগ্য রোগে আক্রান্ত হয়ে পরছি। কিন্তু কৃষি বিভাগের তদারকিতে এবছর সেক্স ফেরোমেন ব্যবহার করে ফসলে পোকার আক্রমন নাই । কমে গেছে উৎপাদন খরচ।

আরেক কৃষক  বলেন, ৮ বিঘা জমিতে কফি আবাদ করি। আমার সবজি বাগানে কোন ভাবেই যখন পোকা দমন করতে পারছিলাম না, সেক্স ফেরোমেন ব্যবহার করে আমরা পোকা দমনে সফল হয়েছি। এতেকরে এক দিকে যেমন বিষমুক্ত সবজি উৎপাদন করতে পারছি। অন্য দিকে আমরা বিষের ক্ষতি থেকে নিজেদের সহ সবাইকে ভাল রাখতে পারছি। পোকা দমনে সব কৃষকে সেক্স ফেরোমেন ব্যবহারের পরামর্শ দেন তিনি। নিরুপায় কৃষক দারস্থ কৃষি বিভাগের। অবশেষে  উপায় বের করলেন কৃষি বিভাগ।

সদর উপজেলার উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা বাবুল হোসেন জানায়, এবছরই শুরু হয়েছে বিষ মুক্ত সবজি চাষ। পরিক্ষামুলক তিরিশ বিঘা জমিতে এই সেক্স ফেরোমেন ব্যবহার করা হয়। প্রতি পাঁচ শতাংশ জমিতে একটি করে সেক্স ফেরোমেন ট্রাপ বসালে, পুরুষ পোকা ফোরোমেনের গন্ধে পাগল হয়ে ছুটে আসে এই ফাঁদের দিকে। ফেরোমেনের নিচে সাবান বা ডিটারজেন্ট যুক্ত পানিতে পরছে। ফলে সবজি বাগানে পুরুষ পোকা একেবারে নিরমুল হয়ে যায়। ফলে নতুন করে আর কোন পোকা আক্রমন করে না।

উপজেলা উপসহকারী উদ্ধিদ সংরক্ষন কর্মকর্তা আক্তার হোসেন জানায়, সেক্স ফেরোমেন আসলে স্ত্রী পোকার গন্ধয়ুক্ত ফাঁদ। এত পুরুষ পোকা আসক্ত হয়ে ফাঁদে পরে মারা যায়। ফলে স্ত্রী পোকা পুরুষ পোকার সাথে মিলিত হতে না পেরে বন্ধ্যাত্বা বরন করে। নতুন করে আর কোন বংস বিস্তার হয় না। এক বার ফেরোমেন ব্যবহার করলেই ফসল তোলা পর্যন্ত পোকা দমনে কৃষদের আর কোন কাজ করতে হয় না। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জানায়, সবজিতে পোকা দমনে সেক্স ফেরোমেন একটি কার্য্যকরী পদ্ধতি।

LEAVE A REPLY