ছাত্রলীগের বিবাদমান গ্রুপগুলোর মধ্যে সংঘর্ষের পর উদ্ভুত পরিস্থিতির কারণে আবারো হল বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

বুধবার ভোরে শিক্ষার্থীদের ঘুম থেকে ডেকে তুলে ভোর ছয়টার মধ্যে ছাত্রদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়। তবে ছাত্রীদের হল সংক্রান্ত কোনো ঘোষণা আসেনি।

ক্যাম্পাস সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইমরান খান সমর্থিত গ্রুপকে সহসভাপতি আবু সাঈদ আকন্দ, অঞ্জন রায় ও যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সাজিদুল ইসলাম সবুজ সমর্থিত সম্মিলিত গ্রুপ ধাওয়া দিয়ে হল দখলে নেয়। এ ঘটনায় উভয় পক্ষ মুখোমুখি অবস্থান নিলে রাতভর সাধারণ শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

sust-1

এ ঘটনার প্রেক্ষিতে পুনরায় সংঘর্ষের শঙ্কায় আজ ভোরের দিকে নিয়মবহির্ভূতভাবে ছাত্রদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এর আগে রাত ১২টার দিকে অস্ত্র উদ্ধারে হলে তল্লাশি চালায় পুলিশ।
দ্বিতীয় ছাত্র হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. এস এম হাসান জাকিরুল ইসলাম বলেন, পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে ছাত্রদের হল বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

প্রথম ছাত্রী হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক আমিনা পারভিন জানান, ছাত্রীদের হল বন্ধের বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি।

এদিকে, জরুরি সিন্ডিকেটের সিদ্ধান্ত ছাড়াই `নিয়ম বহির্ভূতভাবে` শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার নির্দেশ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন খোদ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষার্থীরা। এ বিষয়টিকে প্রশাসনের নিতান্তই স্বেচ্ছাচারিতা বলে অভিযোগ করেছেন বেশ কয়েকজন সাবেক সিন্ডিকেট সদস্য।

sust-3এ বিষয়ে সিন্ডিকেট সদস্য অধ্যাপক ড. কবির হোসেন জানান, হল বন্ধের সিদ্ধান্তটি আমার জানা নেই। তবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, এ বিষয়ে আজ সাড়ে দশটায় জরুরি সিন্ডিকেট আহ্বান করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY