মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাস নতুন ঠিকানায় স্থানান্তর হরা হচ্ছে। বিপুল সংখ্যক প্রবাসীকে প্রতিদিন নানা প্রয়োজনে যোগাযোগ করতে হয় হাইকমিশনে। তাদের সেবাদানে আগামী ২ জানুয়ারি দূতাবাস নতুন ঠিকানায় স্থানান্তরের পাশাপাশি সময়সূচিরও পরিবর্তন করেছে কর্তৃপক্ষ।

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাস জারিকৃত এ সংক্রান্ত নোটিশে বলা হয়েছে, নতুন দূদাবাস উইসমা হিরিহ লুটাস প্রথম তলা, লট-৪৪২ জালান পাহাং, স্তফাক, ৫৩০০০, কুয়ালালামপুর এ ঠিকানায় প্রবাসীদের সেবাদানের সময় সূচী হচ্ছে, মেশিন রিডেবল পাসপোর্টের (নতুন) আবেদন গ্রহণ দুপুর ১২টা থেকে ৩টা, পুরনো পাসপোর্ট ৩টা থেকে বিকাল ৫টা। পাসপোর্ট বিতরণ সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১২টা। পাসপোর্টে জন্মতারিখ ও সংশোধন সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা। বিতরণ পরের দিন দুপুর ২টা থেকে বিকাল ৫টা।

জন্ম নিবন্ধন সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা। বিতরণ পরের দিন সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা। পরিচয়পত্র, প্রত্যয়ন, এলওআই, পারিবারিক সনদপত্র সত্যায়ন, আমমোক্তারনামা ইত্যাদির আবেদন গ্রহণ সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা। বিতরণ পরের দিন দুপুর ২টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত। ট্রাভেল পারমিট সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টায় গ্রহণ এবং পরের দিন দুপুর ২টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত বিতরণ।

মৃতদেহসংক্রান্ত কেস আবেদন গ্রহণ সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা। সংশ্লিষ্ট শাখা থেকে প্রদত্ত তারিখে দুপুর ২টা থেকে বিকাল ৫টায় বিতরণ। শ্রমিকদের ক্ষতিপূরণ, আইনগত সহায়তা এবং অন্যান্য কল্যাণমূলক কাজের জন্য সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টায় আবেদন গ্রহণ এবং সংশ্লিষ্ট শাখা থেকে প্রদত্ত তারিখে দুপুর ২টা থেকে বিকাল ৫টায় বিতরণ।

ভিসা সংক্রান্ত আবেদন গ্রহণ সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত এবং বিতরণ সংশ্লিষ্ট শাখা থেকে প্রদত্ত তারিখে বিকাল ৪টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত। বাণিজ্যিক কাগজপত্র সত্যায়ন সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত।

আবেদন গ্রহণ এবং বিতরণ একই দিন দুপুর ২টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত। আগামী ২ জানুয়ারি থেকে নতুন হাইকমিশনে উল্লিখিত সেবাগুলো দেয়া হবে বলে নোটিশে বলা হয়েছে।

পাসপোর্ট ও ভিসা বিভাগে নিযুক্ত ফার্স্ট সেক্রেটারি মশিউর রহমান এ প্রতিবেদককে বলেন, আমরা শ্রমিকদের সমস্যাগুলো চিহ্নিত করে সমাধানের যথাসাধ্য চেষ্টা করছি। এছাড়া দূরের প্রদেশগুলোতে মোবাইল ক্যাম্পিংয়ের মাধ্যমে পাসপোর্টের আবেদন ও ডেলিভারির ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। যাতে শ্রমিকদের নতুন পাসপোর্ট পেতে অসুবিধা না হয়।

LEAVE A REPLY