সর্বোচ্চ সাহিত্য পুরস্কার জ্ঞানপীঠ পাবেন শঙ্খ ঘোষ

প্রখ্যাত বাঙালি কবি শঙ্খ ঘোষ ভারতে সাহিত্যের সর্বোচ্চ পুরস্কার জ্ঞানপীঠ সম্মানে ভূষিত হলেন । জীবনভর সাহিত্যে অবদান রাখার জন্য তাকে এই সম্মাননা দেওয়া হয়ে। শঙ্খ ঘোষ পাচ্ছেন ৫২তম জ্ঞানপীঠ সম্মান।

গতকাল শুক্রবার জ্ঞানপীঠ নির্বাচন বোর্ডের পক্ষ থেকে তাঁর নাম ঘোষণা করা হয়।

সর্বশেষ ১৯৯৬ সালে বাঙালি হিসেবে এ সম্মাননা পেয়েছিলেন সাহিত্যিক মহাশ্বেতা দেবী। ১৯৬৬ সালে তারাশঙ্কর বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরে বাংলা সাহিত্যে প্রথম জ্ঞানপীঠ পদক এসেছিল। এরপর পুরস্কার পান কবি বিষ্ণু দে (১৯৭১), আশাপূর্ণা দেবী (১৯৭৬) ও কবি সুভাষ মুখোপাধ্যায় (১৯৯১)।

বাংলা ছাড়া হিন্দি, মারাঠি, অসমিয়া, পাঞ্জাবি, মালায়লম ভাষাতেও লিখেছেন কবি শঙ্খ ঘোষ। এর আগে তিনি পেয়েছেন সাহিত্য একাডেমি পুরস্কার, নরসিংহ দাস পুরস্কার, সরস্বতী সম্মান, রবীন্দ্র পুরস্কার, ভারতের রাষ্ট্রীয় সম্মান পদ্মভূষণ ও বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের দেশিকোত্তম।

তাঁর সাড়া জাগানো কবিতার মধ্য রয়েছে ‘তুমি তো তেমন গৌরী নও’, ‘মুখ ঢেকে যায় বিজ্ঞাপনে’, ‘পিঞ্জরে দাঁড়ের শব্দ’, ‘বাবরের প্রার্থনা’ প্রভৃতি। রবীন্দ্র বিশেষজ্ঞ হিসেবেও খ্যাতি রয়েছে তাঁর। ১৯৩২ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশের চাঁদপুরে কবি শঙ্খ ঘোষের জন্ম।

LEAVE A REPLY