ফিফার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে বাংলাদেশের শ্রমিক ইউনিয়ন

কাতারে ২০২২ সালের বিশ্বকাপ আয়োজনের প্রস্তুতিতে শ্রমিকদের অধিকার রক্ষায় প্রভাব খাটাতে ব্যর্থ হওয়ায় ফিফার বিরুদ্ধে মামলায় যোগ দিয়েছে একাধিক বাংলাদেশি শ্রমিক ইউনিয়ন৷ বাংলাদেশি এক শ্রমিকের মামলায় সমর্থন যোগাতে এই উদ্যোগ নিয়েছে সংগঠনগুলো ৷

ফিফার শহর জুরিখে দায়ের করা মামলাটিতে সমর্থন দিচ্ছে নেদারল্যান্ডসের সবচেয়ে বড় শ্রমিক সংগঠন এফএনভি৷ ফিফা যাতে কাতার সরকারকে বিদেশি শ্রমিকদের চাকুরি ছাড়া বা দেশত্যাগের অধিকারসহ ন্যূনতম অধিকার নিশ্চিতে বাধ্য করে, সেজন্য এই মামলা দায়ের করা হয়েছে৷ আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালসহ একাধিক সংগঠন দাবি করে আসছে যে, কাতার বিদেশি শ্রমিকদের উপযুক্ত অধিকার নিশ্চিত করছে না৷ বরং শ্রমিকরা বিভিন্নভাবে বঞ্চনার শিকার হচ্ছে৷

‘বাংলাদেশ ফ্রি ট্রেড ইউনিয়ন কংগ্রেসের’ সাধারণ সম্পাদক রিপন চৌধুরী ফিফার বিরুদ্ধে করা মামলায় এফএনভি-র সঙ্গে যোগ দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন৷ কাতারে নির্মমভাবে শোষণের শিকার এক বাংলাদেশি শ্রমিকের পক্ষে মামলাটি দায়ের করে এফএনভি৷

শোষণের শিকার শ্রমিক, কাতার কিংবা ফিফার কাছ থেকে কোন প্রকার ক্ষতিপূরণ না পাওয়ায় মামলা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন চৌধুরী৷

তিনি বলেন, আমরা বিষয়টি আপোষে মিমাংসার চেষ্টা করেছিলাম৷ কিন্তু আমাদের সব চেষ্টা ব্যর্থ হওয়ায় শেষমেষ পিটিশনটি দায়ের করতে হয়েছে৷

কাতার সরকার অবশ্য সর্বশেষ এই মামলা নিয়ে কোনো মন্তব্য করেনি৷ তবে ইতোপূর্বে তারা শ্রমিকদের শোষণের বিষয়টি অস্বীকার করেছে৷ কিন্তু সেদেশে বিদেশি শ্রমিকদের কাজ করার নিয়ম, যা কাফেলা নামে পরিচিত, অনুসারে বিদেশি শ্রমিকরা তাদের চাকুরিদাতার অনুমতি ছাড়া চাকুরি বদল বা সেদেশ ত্যাগ করতে পারেন না৷ এই নিয়মে সামান্য পরিবর্তন এনে শ্রমিকদের দেশত্যাগ সহজ করার পরিকল্পনা করছে কাতার৷ তবে সমালোচকরা বলছেন, নিয়মে এ ধরনের পরিবর্তন শ্রমিকদের তেমন একটা কাজে আসবে না৷

উল্লেখ্য, গ্যাসসমৃদ্ধ কাতার বিশ্বকাপের প্রস্তুতির জন্য অবকাঠামোসহ বিভিন্ন খাতে ২০০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার খরচ করছে৷ এ সব কাজে বাংলাদেশ, ভারত এবং নেপালের কয়েক লাখ শ্রমিককে নিয়োগ দেয়া হয়েছে

LEAVE A REPLY