আশুলিয়া শিল্পাঞ্চলের পরিস্থিতি স্বাভাবিক, চলছে কর্মব্যাস্ততা

আশুলিয়া শিল্পাঞ্চলের পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। মঙ্গলবার সকাল থেকে কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। সকালে নিজ নিজ কারখানায় কাজে যোগ দিয়েছেন শ্রমিকেরা। স্বাভাবিকভাবেই চলছে উৎপাদন।

টানা পাঁচ দিন বন্ধ থাকার পর সোমবার খুলে দেয়া হয় আশুলিয়ার ৫৯টি পোষাক কারখানা। তার আগে ন্যূনতম মজুরি ১৫ হাজার টাকা নির্ধারণের দাবিতে আরও আট দিন কর্মবিরতি ও বিক্ষোভ পালন করে শ্রমিকেরা।

মঙ্গলবার সকালেও বিভিন্ন কারখানার সামনে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের উপস্থিতি দেখা গেছে। তবে গত কয়েকদিনের মত আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কঠোর অবস্থান দেখা যায়নি। আজও মাইকিং করে শ্রমিকদের মধ্যে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি না করতে বলা হচ্ছে পুলিশের পক্ষ থেকে। বহিষ্কৃত শ্রমিকরা কারখানায় ঝামেলা না করে পুলিশের কাছে যেন দরখাস্ত করেন সেই ঘোষণাও দেয়া হচ্ছে মাইকে।

Female workers work at a garments factory in Bangladesh

মঙ্গলবার কাজে যোগ দিতে আসা শ্রমিকরা জানান, তারা কাজ করতে চান। কাজ করার জন্যই দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে শিল্পাঞ্চলে তাদের আসা। তবে বেতন বৃদ্ধি করাটা এখন সময়ের দাবি।

ডিজাইনার জিন্স নামের একটি কারখানা সুইং অপারেটর নাজমা আক্তার বলেন, বর্তমান বাজারে চলা মুশকিল। ঘরভাড়া, চাল, বাজার এইগুলা কিনার পর আর কোনো টাকা থাকে না। আমাদের যেন বেতনটা একটু বাড়ে।

শিল্পাঞ্চল পুলিশ-১ (আশুলিয়া) পরিচালক (এসপি) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, শিল্পাঞ্চলে এক হাজার পুলিশ সদস্য এবং দুইশ র‌্যাব সদস্য মোতায়েন রয়েছে। সব কারখানাতেই উৎপাদন চলছে। কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।

LEAVE A REPLY