জানুয়ারিতে জ্বালানি তেলের দাম কমছে : অর্থমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করে আগামী জানুয়ারিতে জ্বালানি তেলের দাম কমানোর উদ্যোগ নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। বুধবার সাধারণ বীমা করপোরেশনের লভ্যাংশের ৩০ কোটি টাকার চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, বিশ্ববাজারে বর্তমানে তেলের দাম উঠানামা করছে। তাই দেশে তেলের দাম খুব বেশি কমবে না। তবে কিছু কমানোর উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে।

এর আগে গত ২৪ অক্টোবর অকটেন ও পেট্রোল লিটারে দশ টাকা এবং কেরোসিন ও ডিজেল লিটারে তিন টাকা কমায় সরকার। দাম কমানোর ফলে অকটেন ৮৯ টাকা, পেট্রোল ৮৬ এবং ডিজেল ও কেরোসিন ৬৫ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে।

২০১৩ সালে আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে মূল্য সমন্বয় করে সরকার জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি করেছিল। তখন প্রতি লিটার অকটেন ৯৯ টাকা, পেট্রোল ৯৬ টাকা এবং কেরোসিন ও ডিজেল ৬৮ টাকা নির্ধারণ করা হয়।

muhit

তবে বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম কমার পরিপ্রেক্ষিতে তেলের দাম কমানোর এই সিদ্ধান্ত নেয় সরকার।এদিকে গত ৩১ মার্চ ফার্নেস তেলের দাম প্রতি লিটার ৬০ টাকা থেকে ৪২ টাকায় নামিয়ে আনা হয়।

এক প্রশ্নের উত্তরে অর্থমন্ত্রী বলেন, চলতি অর্থবছর খুব ভালো কেটেছে। লোকজন ভালোভাবে ব্যবসা করেছে। সেই ধারাবাহিকতায় আগামী বছর খুব ভালো কাটবে বলে আশা করা যায়। এর ফল ইতোমধ্যে পাওয়া গেছে। চলতি ২০১৬-১৭ অর্থবছরে বাজেটে প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা ৭ দশমিক ২ শতাংশ ধরা হলেও পরিকল্পনামন্ত্রী বলছেন অর্জন লক্ষ্যমাত্রাকে ছাড়িয়ে যাবে। তা ৭ দশমিক ৫ শতাংশ হবে বলে আশা করা যায়।

অনুষ্ঠানে সাধারণ বীমা করপোরেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ শাহরিয়ার আহসান লভ্যাংশের ৩০ কোটি টাকার চেক অর্থমন্ত্রীর হাতে তুলে দেন। প্রতিষ্ঠানটি গত ২০১৫ সালে ২৮৩ কোটি ২৬ লাখ টাকা মুনাফ অর্জন করে।

LEAVE A REPLY