লক্ষ্মীপুরে ১২ প্রার্থীর কেউই ভোট পাননি

লক্ষ্মীপুরে জেলা পরিষদ নির্বাচনে সদস্য পদে ১২ জন প্রার্থী কোনো ভোট পাননি। নির্বাচনের শুরু থেকে এসব প্রার্থী বিজয়ের ব্যাপারে আশাবাদী থাকলেও ফল ঘোষণার পর তারা হতাশ হয়েছেন। একটি ভোটও না পাওয়ায় হাকডাক দেয়ায় এসব প্রার্থীদের নিয়ে বেশ কৌতূহল সৃষ্টি হয়েছে।

তবে এর মধ্যে চারজন সদস্য প্রার্থী প্রতিবেদনকে জানিয়েছেন, ভোটাররা টাকার কাছে বিক্রি হয়ে গেছে। একেকজন প্রার্থী প্রতিটি ভোটারকে ৫ হাজার থেকে এক লাখ টাকা দিয়েছেন। অনেক প্রার্থী টাকা দিয়ে শপথ করানোর কারণে ব্যালট বাক্সে তাদের ভোট পড়েনি। ভোটারদের বেঈমান ও চরিত্রহীন বলছেন তারা।

জেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্র জানায়, জেলা পরিষদ নির্বাচনে বুধবার (২৮ ডিসেম্বর) ১৫টি ওয়ার্ডে ভোট হয়। সদস্য পদে যারা এক ভোটও পাননি তারা হলেন, রায়পুর-৪ নম্বর ওয়ার্ডে মাসুদ খাঁন, ফরিদ উদ্দিন, মাঈন উদ্দিন মানিক, ৫ নম্বর ওয়ার্ডে আবুল কালাম আজাদ, লক্ষ্মীপুর সদর-৭ নম্বর ওয়ার্ডে জাহাঙ্গীর আলম, ৯ নম্বর ওয়ার্ডে জাকির হোসেন, মো. রাছেল, মোরশেদ আলম, আল আমিন, কমলনগর-১২ নম্বর ওয়ার্ডে শাহিন আলম, ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে নূরনবী চৌধুরী ও মো. শফি উল্যা।

লক্ষ্মীপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও জেলা পরিষদ নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা সোহেল সামাদ বলেন, শান্তিপূর্ণ ও স্বচ্ছ নির্বাচন হয়েছে। ভোটাররা তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়েছেন।

LEAVE A REPLY