সিরিজ সমতায় আনতে বাংলাদেশের প্রয়োজন ২৫২ রান

ক্রীড়া ডেস্ক
দ্বিতীয় ম্যাচে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডকে ২৫১ রানে বেঁধে রেখেছেন মাশরাফিরা। সিরিজে ফেরার ম্যাচে বৃহস্পতিবার ভোরে (বাংলাদেশ সময়) নেলসনের স্যাক্সটন ওভালে টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন মাশরাফি। মুশফিক-মোস্তাফিজকে ছাড়াই মাঠে নামে মাশরাফি বাহিনী।

তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ম্যাচে ক্রাইস্টচার্চে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডের কাছে হেরে যায় টাইগাররা। তাই সিরিজে টিকে থাকতে হলে আজকের ম্যাচে জয়ের বিকল্প নেই।

টস জেতা মাশরাফির আমন্ত্রণে ব্যাট করতে নামে কিউই ব্যাটসম্যান মার্টিন গাপটিল ও টম লাথাম।

আর জয়ের লক্ষ্যে বল শুরু করেন টাইগার অধিনায়ক। প্রত্যয়দীপ্ত মাশরাফি প্রথম ওভারেই সফল। শূন্য রানের বিনিমিয়ে উদ্বোধনী ওভার শেষ করার পাশাপাশি তুলে নেন গাপটিলের উইকেট।

এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে মার্টিন গাপটিলকে প্যাভিলিয়নে ফেরত পাঠান তিনি।

পরে অভিষিক্ত পেসার শুভাশিস রায় বেশ কয়েকটি সুযোগ তৈরী করেছিলেন। তবে সফল হতে পারেননি। এ অবস্থায় কিউইরা কিছুটা প্রতিরোধ গড়ে তোলে। শূন্যরানে গাপটিলকে হারালেও স্বাভাবিক খেলা শুরু করে কিউই ব্যাটসম্যানরা। এ অবস্থা চলতে থাকে দলীয় ৩৭ রান পর্যন্ত।

এসময় তাসকিন তুলে নেন কেইন উইলিয়ামসনকে। ১৪ রান করা উইলিয়ামসন উঁচু করে মারতে গিয়ে সাকিবের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরত যান।

পরে সাকিব আল হাসান ফেরান অপর ও্পেনার টম লাথামকে। দলের হয়ে সবোর্চ্চ ২২ রান করা লাথামকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন সাকিব।

জেমস নিশাম ও নেইল ব্রুম কিছুটা সামলে উঠেছিলেন। এ দুই ব্যাটসম্যান দুই প্রান্ত থেকে দেখেশুনে খেলে ভালো সংগ্রহ গড়ার স্বপ্ন দেখাচ্ছিলেন। ৪৭ রানে তিন উইকেট হারিয়ে বসা নিউজিল্যান্ডকে টেনে নিয়ে যাচ্ছিলেন এ্ দুই ব্যাটসম্যান। শেষ পর্যন্ত ৯৮ রানে যায় কিউইদের চতুর্থ উইকেট।

উইকেট ছেড়ে সামনে এসে খেলতে গিয়ে স্ট্যাম্পড হয়ে ফিরে যান সাজঘরে। এর আগে অবশ্য করে গেছেন দলের জন্য প্রয়োজনীয় ২৮ রান।

দলকে এগিয়ে নেয়ার কাজ তখনো অনেক বাকি। ব্রুম আর কলিন মুনরো মিলে সেই কাজ করতে চাচ্ছিলেন।

তবে সেখানে বাধ সাধেন টাইগার অধিনায়ক। কলিন মুনরোর উইকেট উড়িয়ে দিয়ে সাজঘরের পথ ধরান মাশরাফি। মাত্র ৩ রান করেই ফিরতে হয় মুনরোকে।

২৬ ওভার শেষে কিউইদের সংগ্রহ ১০৭ রান। ব্রুম ৩২ ও লুক রঞ্চি শূন্য রান নিয়ে ক্রিজে রয়েছেন।

আজকের ম্যাচে তিন টাইগার সদস্যের অভিষেক হয়েছে। ইনজুরির কারণে খেলছেন না মি. ডিপেন্ডেবল খ্যাত মুশফিকুর রহিম। মুশফিকের জায়গা ওয়ানডে অভিষেক হচ্ছে উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান নুরুল হাসানের।

ম্যাচে নেই কাটার মাস্টার মোস্তাফিজ। ফিজিওর পরামর্শে কাটার মাস্টারকে আজ বিশ্রাম দেয়া হয়েছে। তার পরিবর্তে আন্তর্জাতিক অভিষেক হয়েছে পেসার শুভাশিস রায়ের।

এছাড়া ফর্মের কারণে বাদ পড়া সৌম্য সরকারের জায়গায় ওয়ানডে অভিষেক হয়েছে লেগ স্পিনার তানভীর হায়দারের।

LEAVE A REPLY