বিশ্বের উঁচু সেতুটি যান চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করা হলো

চীনের দুটি পার্বত্য প্রদেশের মধ্যে তৈরি হওয়া এই সেতুটি বিশ্বের সর্বোচ্চ সেতু। ছবি এএফপিবিশ্বের সবচেয়ে উঁচু সেতু যানবাহন চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে। একটি নদীর ওপর নির্মিত বেইপানজিয়াং নামের ওই সেতুর উচ্চতা ৫৬৫ মিটার বা ১ হাজার ৮৫৪ ফুট। সেতুটি চীনের দুটি পার্বত্য প্রদেশ ইউনান ও গুইঝুর মধ্যে সংযোগ স্থাপন করেছে।

এর ফলে ওই দুই প্রদেশে যাতায়াতের সময় বাঁচবে প্রায় এক-তৃতীয়াংশ। গতকাল বৃহস্পতিবার ওই সেতুটি যানবাহন চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হয়। আজ শুক্রবার গুইঝুর প্রাদেশিক পরিবহন বিভাগ তাদের ওয়েবসাইটে এক বিবৃতিতে এসব কথা বলেছে।

এএফপির খবরে বলা হয়েছে, এ সেতু নির্মাণের ফলে দেশটির দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় দুটি পার্বত্য প্রদেশের মধ্যে সংযোগ স্থাপন সম্ভব হয়েছে এবং যানবাহন যাতায়াতে চার ভাগের তিন ভাগ সময় কম লাগবে। সি ডু নদীর ওপর ওই সেতু তৈরি করা হয়েছে। বিশ্বের সর্বোচ্চ উচ্চতার বেশ কয়েকটি সেতু এখন চীনে আছে। সেতুর গঠন, উচ্চতা, মাটি থেকে এর দূরত্বের পরিপ্রেক্ষিতে বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু সেতু পরিমাপ করা হয়।

গতকাল বৃহস্পতিবার সেতু খুলে দেওয়ার পর দুয়ান নামের এক ট্রাকচালকের বরাত দিয়ে চীনের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সিনহুয়ার খবরে বলা হয়, এর ফলে ইউনান প্রদেশের জুয়ানউয়ি থেকে গুইঝু প্রদেশের শুইচেংয়ে যাতায়াতে চার ঘণ্টারও কম সময় লাগবে। ওই ট্রাকচালক আরও বলেন, গুইঝুং ও ইউনান প্রদেশে যাতায়াতকারী লোকজনের জন্য সেতুটি খুবই উপকারে আসবে।

বিশ্বের সর্বোচ্চ সেতু দিয়ে চলছে যানবাহন। ছবি এএফপিবিশ্বের সর্বোচ্চ সেতু দিয়ে চলছে যানবাহন। ছবি এএফপিস্থানীয় সংবাদপত্র গুইঝু ডেইলির এক সংবাদে বলা হয়েছে, ১ হাজার ৩৪১ কিলোমিটার দীর্ঘ এ সেতু নির্মাণে ১০০ কোটি ইউয়ান (চীনের মুদ্রা) ব্যয় হয়। ডলারের হিসেবে এ ব্যয় দাঁড়ায় ১৪ কোটি ৪০ লাখ ডলার।

LEAVE A REPLY