মুনাফায় শীর্ষে জনতা ব্যাংক

সোসাইটিনিউজ ডেস্ক:
গত বছরের ধারাবাহিকতায় এবছরও সাফল্য ধরে রেখেছে জনতা ব্যাংক লিমিটেড। রাষ্ট্রায়াত্ত্ব ব্যাংকগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি এক হাজার ছয় কোটি টাকা মুনাফা অর্জন করেছে ব্যাংকটি। মুনাফার লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৯০০ কোটি টাকা অর্থাৎ মুনাফায় শতকরা ১১২ ভাগ লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করে ব্যাংকটি।

এ সাফল্যের কারণ সম্পর্কে জানতে চাইলে জনতা ব্যাংকের চেয়ারম্যান শেখ মোঃ ওয়াহিদ-উজ-জামান বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করার লক্ষ্যে সরকারের মহাপরিকল্পনার অংশ হিসেবে আমরাও ২০১৬ সালের জন্য ১৩টি সূচকে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণপূর্বক তা বাস্তবায়নে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ ছিলাম। আর এ জন্য প্রতিটি সূচক অর্জনের লক্ষ্যে পৃথকভাবে ব্যাংকের নির্বাহীদেরকে দায়িত্ব দেওয়া হয়। পাশাপাশি কর্মপরিকল্পনা অনুযায়ি তা বাস্তবায়নে সময় বেঁধে দেওয়া হয়।

এছাড়া ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প উদ্যোক্তাদের উৎসাহিত করার জন্য বিশেষ কর্ম পরিকল্পনাও গ্রহণ করা হয়। সার্বিকভাবে জবাবদিহিতা ও স্বচ্ছতা সৃষ্টি এবং সময়োপযোগী সঠিক সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের ফলে জনতা ব্যাংক অগ্রযাত্রার এ সাফল্য ধরে রেখেছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

ব্যাংকটির সিইও এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ আবদুস সালাম বলেন, ঋণ আদায়ে মাঠ পর্যায়ে তদারকির মাত্রা বৃদ্ধি ও ভাল গ্রাহকদের দেখে ঋণ বিতরণের ফলে এ সাফল্য এসেছে। নিষ্ঠার সাথে কর্মসম্পাদন, পরিকল্পনা তৈরি এবং তা বাস্তবায়নে সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়ায় এ বছরও জনতা ব্যাংক সর্বোচ্চ মুনাফার সাফল্য ধরে রাখতে পেরেছে বলে তিনি মনে করেন।

তিনি জানান, ২০১৫ সাল নাগাদ ব্যাংকটির অনলাইন শাখার সংখ্যা ছিল ৫০৩টি। ২০১৬ সাল শেষে বর্তমানে ব্যাংকের ৯১১টি শাখার মধ্যে ৭২১ টি শাখা অনলাইন সুবিধা চালু করা সম্ভব হয়েছে। এ বছরের জুনের মধ্যে ব্যাংকটির সবগুলো শাখায় অনলাইন সুবিধা চালুর পরিকল্পনা রয়েছে। আর এ সুবিধা চালু হলে ব্যাংকের মুনাফার পরিমাণ বৃদ্ধির পাশাপাশি স্বল্প সুদের আমানত এবং উন্নত গ্রাহক সেবার মান বৃদ্ধিসহ লোকসানী শাখার সংখ্যা আরো কমে আসবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

উল্লেখ্য,ইতোমধ্যে জনতা ব্যাংকের শ্রেণীকৃত ঋণের পরিমাণ, লোকসানী শাখার সংখ্যা, উচ্চ সুদবাহী আমানতের হারসহ কস্ট অব ফান্ড পূর্বের চেয়ে কমেছে এবং পরিচালন মুনাফাসহ নিট মুনাফা,মূলধন পর্যাপ্ততার হার, শ্রেণীকৃত ও অবলোপিত ঋণের বিপরীতে নগদ আদায়ের হার, ঋণ আদায়ের লক্ষ্যে দায়েরকৃত মামলা নিষ্পত্তি, অটোমেশনসহ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ সূচকসমূহ ও উর্ধ্বগতি পরিলক্ষিত হচ্ছে।
সূত্র:- বাসস

LEAVE A REPLY