৪৭০ বছর আগেই ভবিষ্যৎবাণী, ট্রাম্প আমেরিকার প্রেসিডেন্ট হবেন !

আমেরিকার ৪৫তম প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তার অফিসে প্রবেশ করার পর থেকে দুর্নিবার ও অনুপযুক্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণের মাধ্যমে বিভিন্ন অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতির সৃষ্টি করবেন। এমনটাই বলছেন বিশ্বের শ্রেষ্ঠ ভবিষ্যৎদ্রষ্টা ষোড়শ শতকের ফরাসি দার্শনিক মিশেল ডি নোস্টরডেম ওরফে নস্ত্রাদামুস। এখন থেকে ৪৭০ বছর আগে দেওয়া তার ভবিষ্যদ্বাণীর সঙ্গে বাস্তবতার মিল পাওয়া যায় এখনও।

১৬৬৬ সালে লন্ডনের ভয়াবহ আগুন এবং ২০০১ সালে ৯/১১ সন্ত্রাসী হামলা থেকে ২০১৬ সালে ডোনাল্ড ট্রাম্পের আমেরিকার প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়াসহ অসংখ্য বিষয়েই নাকি ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন তিনি। নস্ত্রাদামুস ১৫৬৬ সালে মারা যান। তার ‘লে প্রফেটিস ডে মিশেল ডে নস্ত্রাদামুস’ গ্রন্থ থেকে নতুন বছর ২০১৭ সাল নিয়েও তেমন কিছু ভবিষ্যদ্বাণী ইতিমধ্যে প্রকাশ করা হয়েছে। নতুন বছরেই নাকি ইতালিতে তীব্র অর্থ সংকট দেখা দেবে এবং দেশটিতে বেকারত্ব বেড়ে যাবে। খবর দি সান ও টেক টাইমসের।

নস্ত্রাদামুস তার রহস্যময় ভবিষ্যদ্বাণী নিজেই প্রফেটিস গ্রন্থে লিপিবদ্ধ করে গেছেন। ১০ খণ্ডে রচিত ওই গ্রন্থের প্রত্যেকটিতে ৪ লাইনের ২৬টি করে কবিতায় তার ভবিষ্যদ্বাণীগুলো বিধৃত। সেখান থেকে ২০১৭ সাল নিয়ে কিছু ভবিষ্যদ্বাণী খুঁজে পেয়েছেন গবেষকরা।

এতে বলা হয়েছে, ইউক্রেন ও রাশিয়ার সম্পর্কের উন্নতি ঘটবে ২০১৭ সালে। তবে কিসের ভিত্তিতে এমনটা ঘটবে, তার ব্যাখ্যা দেওয়া হয়নি। ২০১৭ সালে সুপারপাওয়ার হওয়ার পথে চীন আরও এগিয়ে যাবে। ২০১৭ সালের শুরু থেকেই হতে পারে বাণিজ্যিক ভিত্তিতে মহাকাশ ভ্রমণ।

এর পরের দু’বছরের মধ্যে চাঁদে পর্যটন শিল্প গড়ে উঠবে। এ বছরেই উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার বিভাজন শেষ হবে। উত্তরের কিম জং উনের জন্য বছরটা খারাপ যাবে। এমনকি তিনি ক্ষমতাচ্যুতও হতে পারেন। পরিবেশ দূষণ ও উষ্ণায়ন নিয়ে দেশে দেশে যুদ্ধাবস্থা তৈরি হতে পারে। যেটাকে বায়োলজিক্যাল ওয়ার হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।সৌরশক্তির ব্যবহার ব্যাপক আকার নেবে।

LEAVE A REPLY