লঞ্চের অবৈধ রোটেশন পদ্ধতি বাতিলের দাবিতে ধর্মঘট

ঢাকা-পটুয়াখালী নৌরুটে অবৈধ রোটেশন পদ্ধতি বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন ও অবস্থান কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পটুয়াখালী লঞ্চ টার্মিনালে ভুক্তভোগী জনগণের পক্ষে এ কর্মসূচি পালিত হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন পটুয়াখালী জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আলহাজ খান মোশারফ হোসেন, পৌর মেয়র ডা. মো. শফিকুল ইসলাম, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ তারিকুজ্জামান মনি, পটুয়াখালী প্রেসক্লাব সভাপতি কাজী শামসুর রহমান ইকবাল, চেম্বার অব কমার্স সভাপতি মো. মহিউদ্দীন প্রমুখ।

বিআইডব্লিউটিএ’র কর্মকর্তাসহ সব ডাবল ডেকার লঞ্চের সুপারভাইজার ও লঞ্চঘাট ইজারাদারকে ডেকে আগামী ৫ জানুয়ারির মধ্যে রোটেশন পদ্ধতি বাতিল করে দুদিনের আলটিমেটাম দেয়া হয়।

এছাড়া নির্ধারিত লঞ্চ প্রতিদিন চলাচল না করলে সব ডাবল ডেকার লঞ্চকে পটুয়াখালী টার্মিনালে নোঙর করতে দেয়া হবে না বলে হুঁশিয়ারি দেন আন্দোলনকারীরা।

উল্লেখ্য, ঢাকা-পটুয়াখালী নৌরুটে প্রতিদিন চার-পাঁচটি ডাবল ডেকার লঞ্চ চলাচল করার কথা থাকলেও মালিক পক্ষ রোটেশন প্রথার মাধ্যমে এ রুটে প্রতিদিন দুটি লঞ্চ চালাচ্ছে। লঞ্চগুলোতে ধারণক্ষমতার তিন-চার গুণ বেশি যাত্রী নিয়ে চলাচল করছে। ফলে যাত্রীদের ভোগান্তি দিন দিন বাড়ছে।

LEAVE A REPLY