সুনামগঞ্জে মাছ ধরা নিয়ে সংঘর্ষে ১ জন নিহত

সোসাইটিনিউজ ডেস্ক: জলমহালে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে সুনামগঞ্জে দু’পক্ষের সংঘর্ষে ১ জন নিহত ও উভয়পক্ষের নারীসহ কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়েছেন।

সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার কোরবান নগর ইউনিয়নের মনোহরপুর গ্রামে সোমবার মধ্যরাতে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ফখর উদ্দিন সদর উপজেলার কাঠইর ইউনিয়নের মনোহরপুর গ্রামের মৃত আবদুল জলিলের ছেলে।

জানা গেছে, সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার মনোহরপুর গ্রামের পার্শবর্তী পুকল ফোরা নামক একটি জলমহাল (বিল ) নিয়ে সুরুজ মিয়া ও মনফর আলীর পক্ষের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। এ নিয়ে মামলাও হয়েছে।

এদিকে জলমহালে নিজেদের দখল ও আধিপত্য বিস্তার করতে গিয়ে সোমবার মধ্যরাতে উভয়পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে প্রায় ঘণ্টাব্যপী সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে মনফর আলীর লোকজনের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে সুরুজ আলীর পক্ষের ফখর উদ্দির ঘটনাস্থলেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।

এছাড়াও সংঘর্ষে উভয় পক্ষের নারীসহ কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়েছেন।

খবর পেয়ে সদর মডেল থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে রাত ১টার দিকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।

সদর মডেল থানার ওসি মো. হারুন অর রশীদ চৌধুরী মঙ্গলবার ভোরে জানান, ফখর উদ্দিন হত্যকাণ্ড ও সংঘর্ষের ঘটনায় জড়িত থাকায় ভোররাতে মনোহরপুর গ্রামের মনফর আলী, তার ছেলে সাদেক আলী, ছিদ্দেক আলী, তাজুদ আলীর স্ত্রী জাহানারা, ময়না মিয়ার স্ত্রী হবিবুনন্নেছা, জাহানারা, আবদুস ছালামের স্ত্রী মনোয়ারা, আনছার আলীর স্ত্রী ছাবিরুন ন্নেছাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।