দিয়াজ হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পরিবর্তন, পরিবারের দাবি ষড়যন্ত্র

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ সম্পাদক দিয়াজ ইরফান চৌধুরী হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পরিবর্তন করা হয়েছে।

শুরু থেকে আদালতের নির্দেশ দিয়াজ হত্যা মামলার তদন্ত করে আসছিল সিআইডির সহকারী পুলিশ সুপার অহিদুর রহমান। এখন থেকে এ মামলার তদন্ত করবেন সিআইডির সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার হুমায়ুন করিব সরকার।

তবে দিয়াজের পরিবারের দাবি, সুষ্ঠু তদন্ত বানচাল করার জন্য ও তদন্ত কাজকে দীর্ঘায়িত করতে এই পরিবর্তন আনা হয়েছে। তবে সিআইডি দাবির, বদলীজনিত কারণেই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পরিবর্তন।

 

দিয়াজের বড় বোন অ্যাডভোকেট জুবাঈদা ছরওয়ার চৌধুরী নিপা বলেন, আমার ভাই (দিয়াজ) হত্যার সুষ্ঠু তদন্তকে বানচাল করতে ও মামলার তদন্ত কাজকে দীর্ঘায়িত করতে এই পরিবর্তন করা হয়েছে। মামলার দায়িত্বে থাকা অহিদুর রহমান নিজের চোখে বহু আলামত পরীক্ষা করেছেন। তদন্ত করতে গিয়ে এ হত্যার বিষয়ে এই কয়েকদিনে অনেক অভিজ্ঞতাও হয়েছে। এখন নতুন করে আরেকজন দায়িত্বে আসল, বিষয়টা কেমন জানি হয়ে গেল। এরই মধ্যে বহু আলামত নষ্টও হয়ে গেছে।

গত ২৪ নভেম্বর চট্টগ্রামের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শিবলু কুমার দের আদালতে বাদি হয়ে দিয়াজের মা জাহেদা আমিন একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর, বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি টিপুসহ ১০ জনকে আসামি করা হয়। তার নেতৃত্বেই কবর থেকে লাশ তুলে ঢাকা মেডিকেলে পুনঃময়নাতদন্ত শেষ করা হয়। ময়নাতদন্তের দায়িত্বে থাকা চিকিৎসক দল চট্টগ্রামে এসে দিয়াজের বাসায় পরিদর্শন করে আলামত নিয়ে গেছেন।

উল্লেখ্য, গত ২০ নভেম্বর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের দুই নম্বর গেট সংলগ্ন নিজ বাসা থেকে দিয়াজের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

LEAVE A REPLY