নির্বাচন কমিশন প্রতীক বাতিল করতে পারে -আইনমন্ত্রী

জামায়াতের দলীয় প্রতীক হিসেবে আদালতের মনোগ্রামে ব্যবহৃত দাঁড়িপাল্লা প্রতীক বাতিলে নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্তকে সঠিক বলে মন্তব্য করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

বুধবার বিচার প্রশাসন ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট ভবনে স্পেশাল জজ, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের জজ/সমপর্যায়ের বিচার বিভাগীয় কর্মকর্তাদের ‘ওরিয়েন্টেশন ট্রেনিং কোর্স’ এর উদ্বোধনের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

সম্প্রতি ফুল কোর্ট সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী দাঁড়িপাল্লা প্রতীক বাতিলে নির্বাচন কমিশনকে অনুরোধ করে সুপ্রিমকোর্ট প্রশাসন।

সেই পরিপ্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশন প্রতীক বাতিলের এই সিদ্ধান্ত নেয়।

এ বিষয়ে আইনমন্ত্রী বলেন, প্রতীক নির্বাচনের এখতিয়ার হচ্ছে নির্বাচন কমিশনের। নির্বাচন কমিশন যদি কোনো প্রতীককে বাদ দিতে চায় বা কোনো প্রতীককে অন্তর্ভূক্তি করতে চায়, আইনত সেটা তারা পারে। নির্বাচন কমিশন দাঁড়িপাল্লা বাদ দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আইনত যেহেতু তারা সেটা পারে, আমরা বলেছি এটা ঠিক।

LEAVE A REPLY