তিনজনের বেশি কমিশনে থাকলে গোলমাল হবে -শামসুল হুদা

নির্বাচন কমিশনার নিয়োগে এখন আইন করার পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। তবে তিনজনের বেশি ব্যক্তি দিয়ে কমিশন গঠন করা হলে সেখানে গোলমাল সৃষ্টি হবে বলে মন্তব্য করেছেন সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) ড. এ টি এম শামসুল হুদা।

আজ বৃহস্পতিবার বেসরকারি সংস্থা সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) আয়োজিত গোলটেবিল বৈঠকে শামসুল হুদা এসব কথা বলেন।

সাবেক সিইসি আরো বলেন, একটি বড় রাজনৈতিক দলের সংসদে প্রতিনিধিত্ব থাকবে না, এমন বাস্তবতা তারা কল্পনাই করেননি। ফলে সে সময়ে তাদের দেওয়া কমিশনার নিয়োগের প্রস্তাব এখন উপযুক্ত নয়।

শামসুল হুদা বলেন, সরকারি দল একটা কথা বলেছে যে, মানে এটা উনাদের প্রস্তাব, নির্বাচনকালীন সময়ে তার মানে ওই তিন মাস সময়ে সমস্ত গভর্নমেন্ট এজেন্সি একটা সুপারভাইজরি অথরিটি অর্পণ করার একটা প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। মানে যে কাজটা প্রাইম মিনিস্টার করে থাকেন ভার্চুয়ালি, সেই রকমই একটা দায়িত্ব দেওয়ার প্রস্তাবনা করা হয়েছে যে, তারা করবে। তো এটা তো আপনার, কমিশনার যদি ঠিকমতো না করেন, তাহলে তো এটা অপাত্রে দান করা হবে।

সাবেক নির্বাচন কমিশনার সাখাওয়াত হোসেন বলেন, নির্বাচনের দিন সরকারের ভূমিকা কী থাকবে তার ওপর নির্ভর করে সুষ্ঠু নির্বাচন হবে কি হবে না।

অনুষ্ঠানে সুজনের পক্ষ থেকে কমিশন পুনর্গঠনে আইন করতে চারটি প্রস্তাব তুলে ধরা হয়।

গোলটেবিলে আরো বক্তব্য দেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ইনাম আহমেদ চৌধুরী, লেখক ও গবেষক সৈয়দ আবুল মকসুদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক আসিফ নজরুল প্রমুখ।

LEAVE A REPLY